অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বিষয়ে সমঝোতা স্মারককে স্বাগত জানিয়েছে চীন এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো


রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বিষয়ে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে সম্পাদিত সমঝোতা স্মারককে স্বাগত জানিয়েছে চীন এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের সাথে পৃথক পৃথক প্রতিক্রিয়ায় ঢাকায় চীনের রাষ্ট্রদূত এই চুক্তিকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে প্রথম পদক্ষেপ বলে মনে করেন। ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রদূতগণ মনে করেন, আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধানই উত্তম পথ। তবে প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে জাতিসংঘের অংশগ্রহণ থাকা জরুরি। বাংলাদেশের বিরোধী দল বিএনপি বলছে, যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে তাতে অস্পষ্টতা আছে। এই চুক্তি জনসম্মুখে প্রকাশ করা উচিত বলে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন। এদিকে, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তিকে হাস্যকর এবং জনসংযোগের স্টান্টবাজি বলে মন্তব্য করেছে। সংস্থাটির পরিচালক বিল ফ্রেলিক জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষন ছাড়া প্রত্যাবাসন ফলপ্রসূ হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন।

XS
SM
MD
LG