অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে আশ্রয়গ্রহণকারী রোহিঙ্গাদের ভোটার হওয়া ঠেকাতে কঠোর নজরদারী


বাংলাদেশের ভোটার তালিকা পুনরায় হালনাগাদ করা হচ্ছে ২৫ জুলাই থেকে ৯ আগস্ট পর্যন্ত। বাংলাদেশে আশ্রয়গ্রহণকারী মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিকরা যাতে এই ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করাতে না পারে-সে লক্ষ্যে কঠোর সতর্কতা এবং নজরদারীর কথা জানিয়েছে বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন।

কমিশন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইতোপূর্বে ভোটার তালিকা প্রণয়ন বা হালনাগাদের সময় তিনটি জেলা অর্থাৎ কক্সবাজার, বান্দরবান ও রাঙামাটিতেই এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হতো। রোহিঙ্গারা বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়ার কারণে এবারে চট্টগ্রাম এবং খাগড়াছড়ি জেলাকেও ওই ব্যবস্থার অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট জেলা-উপজেলা এবং নগর-শহরে বিশেষ কমিটিও গঠন করা হয়েছে। এছাড়া আগের তুলনায় ১০টি বিশেষ এলাকা বাড়িয়ে ৩০টি এলাকা গঠন করা হয়েছে-নজরদারী ও সতর্কতা গ্রহণের জন্য। নির্বাচন কমিশন কর্মকর্তারা জানান, ওই সব এলাকায় যারা ভোটার হতে ইচ্ছুক তাদের বাবা-মা ছাড়াও চাচা-ফুফুসহ নিকটাত্মীয়দের পরিচয়পত্র দেখাতে হবে।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারের হাজার হাজার রোহিঙ্গা আশ্রয় প্রার্থী ইতোমধ্যে নানা পন্থায় বাংলাদেশে ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করিয়েছেন, যাদের মধ্যে কমপক্ষে ৪০ হাজারের নাম ইতোমধ্যে ভোটার তালিকা থেকে বাদ পড়েছে বলে নির্বাচন কমিশন কর্মকর্তারা বলছেন। ঢাকা থেকে আমীর খসরু।




XS
SM
MD
LG