অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা হয়েছে এই মর্মে খবরের সত্যতা নেই


ওয়েব দুনিয়ার একটি খবরে রাজধানী ঢাকাসহ বহিঃর্বিশ্বে রীতিমতো চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা হয়েছে এই মর্মে খবর দিয়েছিল ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ ১৮। সেখানে বলা হয়, গত ২৪শে আগস্ট প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের অন্তত ৬ থেকে ৭জন সদস্য হত্যাপ্রচেষ্টার প্রস্তুতি নিয়েছিল। কথিত ওই হামলাচেষ্টার সঙ্গে জড়িত ছিল নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবি। পরিকল্পনা ছিল, জেএমবির জঙ্গিরা অন্যান্য নিরাপত্তা রক্ষীদের মনোযোগ অন্যদিকে সরানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের চারপাশে সিরিজ বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে খুনিদের পালানোর ব্যবস্থা করে দেবে। খবরটি চাউর হওয়ার পর, তা প্রচার করবেন কিনা এ নিয়ে ঢাকার সাংবাদিকরা দ্বিধাদ্বন্দ্বে পড়েন। একপর্যায়ে কয়েকটি টেলিভিশন ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে খবরটি স্ক্রলে প্রচার করে। অল্প সময় পর কোন কারণ ছাড়াই তারা খবরটি প্রত্যাহার করে নেয়। একটি ইংরেজি দৈনিক প্রথম সংস্করণে খবরটি প্রকাশ করে। গভীর রাতে দু’টি টেলিভিশন টকশো’র আয়োজন করে। প্রধান প্রধান সংবাদ মাধ্যমগুলো এ সংবাদ প্রকাশ ও প্রচারে বিরত থাকে। তবে সরকার নিয়ন্ত্রিত বার্তা সংস্থা বাসস মধ্যরাতে (ঝযবরশয ঐধংরহধ ংঁৎারাবং ধঃঃবসঢ়ঃ ড়হ ষরভব) শিরোনামে খবরটি প্রকাশ করে। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই তা প্রত্যাহার করে নেয়। রোববার সকালের দিকে খবরটি ফের আলোচনায় আসে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বান্দরবানে সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আকাশছোঁয়া জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে দেশি-বিদেশী একটি মতলবি মহল তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে। অন্যদিকে বেলা দু’টোর দিকে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, খবরটি সম্পূর্ণ ভুয়া। এ ধরনের কোন তথ্য সরকারের কাছে নেই। এর অল্প সময় পরেই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর হামলার চেষ্টার খবর সম্পূর্ণভাবে ভিত্তিহীন। প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৩শে সেপ্টেম্বর একটি বিদেশী টিভি চ্যানেল ও একটি আন্তর্জাতিক অনলাইন পত্রিকার সূত্র ব্যবহার করে বাংলাদেশের কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম খবরটি প্রচার করে। শুধু তাই নয়, প্রধানমন্ত্রীর ওপর তথাকথিত ব্যর্থ হামলার সঙ্গে একটি বিশেষ বাহিনীর কতিপয় সদস্যকে সংশ্লিষ্ট করে কয়েকটি টিভি চ্যানেল খবর প্রচারসহ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যেÑ প্রধানমন্ত্রীর ওপর হামলা চেষ্টার খবরটি সম্পুর্ণভাবে ভিত্তিহীন, বিভ্রান্তিমূলক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। বিজ্ঞপ্তিতে এইরূপ ভিত্তিহীন ও বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ প্রকাশের পূর্বে সংশ্লিষ্ট সকলকে সতর্কতা অবলম্বন ও বিচার-বিবেচনাপ্রসূত মিডিয়া কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়।

XS
SM
MD
LG