অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে দলীয় নেতাদের সাথে তারেক রহমানের সিরিজ বৈঠক


ফাইল ছবিতে বিএনপি-র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দেখা যাচ্ছে।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি-র অবস্থান, কর্মকৌশল ঠিক করতে টানা তিন দিন দলের নেতাদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক শুরু করেছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। প্রথম দিনে তিনি বৈঠক করেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপদেষ্টাদের সঙ্গে। দলের ৩৫ জন ভাইস চেয়ারম্যান ও ৭৪ জন উপদেষ্টা রয়েছেন। তারেক রহমান লন্ডন আর নেতারা ঢাকার গুলশান অফিসে বসে বৈঠক করেন। তারেক রহমান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। তারা কথা বলেন, আগামী ভোট, খালেদা জিয়ার স্থায়ী মুক্তি ও আন্দোলন ইস্যু নিয়ে। বৈঠকে অধিকাংশ নেতা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, নিরপেক্ষ ভোটের পক্ষে মত প্রকাশ করেন। তারা বলেন, নিরপেক্ষ পরিবেশ ছাড়া আগামীতে কোন ধরনের ভোটে অংশ নিয়ে লাভ নেই।

বুধবার দ্বিতীয় দিনের বৈঠকে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক, সম্পাদক ও সহ সম্পাদকরা অংশ নেবেন। বৃহস্পতিবার তৃতীয় দিনের বৈঠকে থাকবেন, বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা। প্রতিটি বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীরও থাকবেন। বিএনপির নির্বাহী কমিটির সর্বশেষ বৈঠক ২০১৮ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কারাবন্দি হওয়ার আগে। তারেক রহমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেওয়ার পর এটাই প্রথম বৈঠক।

বিএনপি ঘোষণা দিয়েছে পরিবেশ তৈরি না হলে তারা আগামী নির্বাচনে যাবে না। কিন্তু ভোট নিয়ে সরকারি দলের আগাম কিছু কার্যক্রম দেখে বিএনপি এই বৈঠক ডেকেছে। তারা সবকিছু থেকে নিজেদের আলাদা রাখতে চায় না। সরকারি দলের অবস্থান আগাম নির্বাচনের দিকে কিনা সেই বিষয়টি বিএনপি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। বৈঠকে নেতারা তাদের বিভিন্ন অভিমত তুলে ধরেন। তিনদিনের বৈঠক শেষ হলে আনুষ্ঠানিকভাবে সবকিছু তুলে ধরা হবে। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে কী করণীয় সেসব বিষয়ে নেতাদের মতামত নিতেই টানা বৈঠক ডাকা হয়েছে।

XS
SM
MD
LG