অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কার্টুনিস্ট কিশোর মুক্ত, নির্যাতনের অভিযোগ


কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর মুক্তি পেয়েছেন। ১০ মাস আগে তাকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আটক করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে কাশিমপুর কারাগার থেকে কিশোর মুক্তি পান। কারামুক্তির পর কিশোর সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, বাসায় যাওয়ার মতো অবস্থায় নেই। গ্রেপ্তারের পর আমাকে নির্যাতন করা হয়েছে। বাম পায়ে এখনো ব্যাথা। ভালমতো হাঁটতে সমস্যা হয়। কানে আঘাত করা হয়েছে। এখনো কান দিয়ে পুঁজ বের হয়। শুনতেও পারি না ঠিকমতো। কারাগারে চিকিৎসা পেয়েছেন কিনা, এমন এক প্রশ্নের জবাবে কার্টুনিস্ট কিশোর বলেন, কি আর বলবো! কারাগারে যাওয়ার আগে অল্প ডায়াবেটিস ছিল। এখন ডায়াবেটিস অনেকে বেড়ে গেছে। শারীরিক ও মানসিকভাবে খুব খারাপ অবস্থায় আছেন এটাও বললেন হতাশার সুরে। বুধবার হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ থেকে আহমেদ কবির কিশোরকে ছয় মাসের জামিন দেয়া হয়। একই মামলায় কারাগারে আটক লেখক মুশতাক আহমেদ গত বৃহস্পতিবার মারা যান। তার মৃত্যু নিয়ে দেশ-বিদেশে প্রতিবাদ জারি রয়েছে। জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। চেয়েছে এই মৃত্যুর দ্রুত ও স্বচ্ছ তদন্ত।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:40 0:00
সরাসরি লিংক


সরকার গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্টে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু স্বাভাবিক বলে উল্লেখ করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি অবশ্য বলেন, ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে চূড়ান্তভাবে জানা যাবে।

ওদিকে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা এইচটি ইমামকে বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়েছে। দীর্ঘ রোগভোগের পর বুধবার মধ্যরাতে এইচটি ইমাম ৮২ বছর বয়সে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মারা যান। তার লাশ সকালে হেলিকপ্টার যোগে গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় নিয়ে যাওয়া হয়। দুপুরে নেয়া হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। সেখানে সর্বস্তরের মানুষ তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান। প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

XS
SM
MD
LG