অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কুমিল্লার ঘটনার জের ধরে চাঁদপুরে সংঘর্ষে ৪ জন নিহত, ২২টি জেলায় বিজিবি মোতায়েন 


কুমিল্লায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে - ফটো- মানবজমিন

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে মুসলমানদের পবিত্র গ্রন্থ কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগের পরিপ্রক্ষিতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে দেশের বিভিন্ন জেলায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ২২ জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি।

পুলিশ, র‍্যাবসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতাও জোরদার করা হয়েছে। উস্কানি, মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে কুমিল্লা ও চট্টগ্রাম রেঞ্জের বিভিন্ন এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে ৪৩ জনকে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, কুমিল্লায় পূজামণ্ডপের ঘটনায় কয়েকজনকে চিহ্নিত করা হয়েছে।বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন। কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

গত বুধবার সকালে কুমিল্লা শহরের নানুয়া দীঘির পাড়ে পূজামণ্ডপে কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগছড়িয়েপড়লে দিনভর শহরে বিক্ষোভ হয়। এ সময় সংঘর্ষে আহত হন অন্তত ১৫ জন। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু পরে উত্তেজনা দেখা দেয় আরও বেশ কয়েকটি জেলায়। রাতে সবচেয়ে বড় সংঘর্ষটির খবর পাওয়া যায় চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ থেকে। সংঘাতে চারজন নিহতের পর সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার কুমিল্লার নানুয়া দীঘির পাড়ের পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন। এ সময় তিনি ৪৩ জনকে আটকের কথা জানান। ডিআইজি বলেন, উস্কানি দেয়ার জন্য ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। কুমিল্লা ছাড়া আর যেখানে যেখানে হামলার ঘটনা ঘটেছে সব জায়গায় পুলিশ তৎপর রয়েছে। প্রতিটি ঘটনাতেই মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বান্দরবনের লামা উপজেলায় কয়েকটি মন্দির ও হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, কুমিল্লায় মন্দিরে কোরআন অবমাননা করা হয়েছে, এমন অভিযোগে বৃহস্পতিবার সকালে সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা ব্যানারে প্রতিবাদ মিছিল করে এসে এ হামলা চালায়। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ১২-১৩ জন আহত হন। আহতদের লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওদিকে ২২টি জেলায় বিজিবি মোতায়েনের তথ্য জানিয়েছেন, বিজিবি’র পরিচালক (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান। তিনি বলেন, জেলা প্রশাসনের চাহিদা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে ২২টি জেলায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের চাহিদা থাকলে রাজধানীতেও বিজিবি মোতায়েন করা হবে বলে জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করা হবে। তদন্ত চলছে। যারাই জড়িত থাকুক তাদের খুঁজে বের করা হবে। বৃহস্পতিবার ঢাকেশ্বরী মন্দিরে মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটি আয়োজিত শারদীয় দুর্গাপূজার মহানবমী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, কুমিল্লার ঘটনার তদন্ত হচ্ছে। আমরা অনেক তথ্য পাচ্ছি। এখন ডিজিটাল যুগ। জড়িত যারা, আর যেই ধর্মেরই হোক না কেন, আমরা তাদের খুঁজে বের করবোই।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে অশুভ অপশক্তি, উগ্র সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী কুমিল্লাসহ ১০ থেকে ১২টি জায়গায় মন্দির এবং হিন্দুধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে হামলা করেছে।শেখ হাসিনার সরকার এসব অপশক্তিকে মাথা তুলতে দেবে না। রাজধানীর রামকৃষ্ণ মিশন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

ওদিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশে নানা সমস্যা রয়েছে। সেখান থেকে জনগণের দৃষ্টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য কুমিল্লার ঘটনা ঘটানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সবার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তিনি। বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী সমবায় দলের ১১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

XS
SM
MD
LG