অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জার্মানির অ্যাঙ্গেলা মার্কেল ১৬ বছর পর চ্যান্সেলরের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন


অ্যাঙ্গেলা মার্কেল জার্মানির বার্লিনে মন্ত্রিসভা বৈঠকের প্রাক্কালে ভাইস চ্যান্সেলর ও অর্থমন্ত্রী ওলাফ শোলজ'র কাছ থেকে ফুলের তোড়া গ্রহণ করছেন, ২৪শে নভেম্বর, ২০২১, ছবি/মার্কাস শ্রেইবার/এপি

২০০৫ সালের ২২শে নভেম্বর জার্মানির প্রথম একজন মহিলা চ্যান্সেলর হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর, অ্যাঙ্গেলা মার্কেল ইতিহাসের পাতায় তাঁর নামটি নিশ্চিত করেছিলেনI

পরবর্তী ১৬টি বছর জার্মানির অবস্থান, সমৃদ্ধি, প্রভাব, ভঙ্গুর একটি ইউরোপীয় ইউনিয়নকে সংঘবদ্ধ করা, নানাবিধ সঙ্কট মোকাবেলা এবং তদুপরি মহিলাদের জন্য সফল একজন প্রতীক হিসাবে তাঁর অবদান ছিল অপরিসীমI

৬৭ বছর বয়সে তাঁর প্রায় রেকর্ড মেয়াদ শেষে এই নেত্রী দপ্তর ছাড়ার প্রাক্কালে বিদেশ থেকে পেয়েছেন প্রশংসা ও স্বদেশে অবারিত জনপ্রিয়তাI আশা করা হচ্ছে তাঁর মনোনীত উত্তরসূরি, ওলাফ শোলজ বুধবার দায়িত্ব গ্রহণ করবেনI

প্রাক্তন একজন বিজ্ঞানী, মার্কেল, কমিউনিস্ট পূর্ব জার্মানিতে বড় হয়েছেনI তাঁর এককালীন পরামর্শদাতা, হেলমুট কোল, যিনি তাঁর ১৯৮২ থেকে ১৯৯৮ সালের ক্ষমতাসীন সময়ে দুই জার্মানিকে একীভূত করেছিলেন, তাঁরই রয়েছে দীর্ঘ সময় ধরে ক্ষমতায় থাকার রেকর্ডI সেই রেকর্ডের ঠিক এক সপ্তাহ আগে মার্কেল পদ থেকে সরে দাঁড়ালেনI

মার্কেল যদিও অভাবনীয় কোনো সাফল্য অর্জন করেন নি, তবে মধ্য ডানপন্থী এই খ্রীষ্টান ডেমোক্রাটকে সঙ্কট মোকাবেলায় বা ব্যবস্থাপনায় অপরিহার্য ব্যবস্থাপক এবং সঙ্কটকালীন সময়ে পশ্চিমি মূল্যবোধের রক্ষক বলে ভাবা হয়I

তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ৪জন প্রেসিডেন্ট, ফরাসি ৪জন প্রেসিডেন্ট, ৫জন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী এবং ইতালির ৮ জন প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি দায়িত্ব পালন করে গেছেনI চ্যান্সেলর থাকাকালীন তাঁকে ৪টি বড় ধরণের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছে, যেমন বিশ্বব্যাপী আর্থিক সঙ্কট, ইউরোপের ঋণ সঙ্কট, ইউরোপে ২০১৫-২০১৬ সালের অগণিত শরণার্থী মোকাবেলা এবং করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত মহামারীI

XS
SM
MD
LG