অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সন্ত্রাসবাদের লিখিত ইতিহাসের গোড়ার দিকটা দেখা যায় , তা হলে দেখবো সে খানেও ধর্মই ছিল এর উদ্দেশ্য, বিশেষত এ কথাটি সত্য যেমন প্রাচীন কালে তেমনি মধ্যযুগেও। তবে ধর্মনিরপেক্ষ নেশন –স্টেট বা জাতিরাষ্ট্রের উদ্ভবে ধর্ম ধীরে ধীরে পিছিয়ে পড়লো , রাজনীতি থেকে। অন্তত ১৯৭৯ সাল পর্যন্ত এই চালচিত্র ছিল বিশ্বের । তবে ১৯৭৯ সালে দুটি ঘটনা ঘটলো , প্রথমত ইরানে ইসলামি বিপ্লবের মাধ্যমে ইরানের শাহ’র পতন এবং আয়াতুল্লাহ খোমেনির উত্থান , আর দ্বিতীয় ঘটনাটি হচ্ছে মক্কায় কট্টরপন্থিদের দ্বারা কাবা শরিফ দখল, আর তখনই মনে হচ্ছে ধর্মে সন্ত্রাসবাদের এই আধুনিক যুগের সূচনা ।

বর্তমান যুগে ধর্ম আবার মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে একটি শূন্যতার মধ্যে । কমিউনিজমের অবসানে এবং এই গনতান্ত্রিক সমাজে ও মুক্তবাজার পূঁজির অস্থিতিশীরতা নিয়ে যখন প্রশ্ন উঠছিল এবং সমাজবাদী কর্তৃত্বপরায়ণ সরকারগুলোর পতনের পর , ধর্ম একটি প্রভাবশালী উপাদান হয়ে দাঁড়ালো মানুষের জীবনে যেমন , তেমনি তা রাজনৈতিক সহিংসতাকে প্রণোদনা দানের একটি অস্ত্র হয়ে উঠলো এবং সেটাই এই একুশ শতকে অব্যাহত আছে।

XS
SM
MD
LG