অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকার সংসদ ভবন আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত


কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকার সংসদ ভবনে আগুন লাগার পর ধোঁয়ায় আচ্ছাদিত ভবন, ২রা জানুয়ারী, ২০২২, ছবি জেরোম ডিলে/এপি

দমকলকর্মীরা রবিবার দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় সংসদ চত্বরে লাগা আগুন নেভানোর জোর চেষ্টা চালান। অগ্নিকান্ডের এই ঘটনার ফলে কেপ টাউনের কেন্দ্রে কালো ধোঁয়ার একটি কুন্ডলী ও অগ্নিশিখা আকাশ বেয়ে উঠতে থাকে।

গণপূর্ত ও অবকাঠামো মন্ত্রী প্যাট্রিসিয়া ডি লিলে জানান, একটি দপ্তর-ভবনের তৃতীয় তলায় আগুনটির সূত্রপাত হয় যা জাতীয় সংসদ ভবনে ছড়িয়ে পড়ে, যেখানে দক্ষিণ আফ্রিকার সংসদ বসে।

কেপ টাউন শহরের দমকল ও উদ্ধার পরিষেবার মুখপাত্র জারমেইন ক্যারেল্স বলেন যে কেউ আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। নিরাপত্তা রক্ষীরা ভোর ৬ টার দিকে প্রথম অগ্নিকান্ডের খবর দেন এবং ৩৫ জন দমকলকর্মী ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন বলে তিনি জানান।

ডি লিলে বলেন যে, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসাকে অগ্নিকান্ডটির বিষয়ে অবহিত করা হয়েছে। আর্চবিশপ ডেসমন্ড ‍টুটু’র অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে প্রেসিডেন্ট এবং দক্ষিণ আফ্রিকার উচ্চপদস্থ অনেক রাজনীতিবিদ কেপ টাউনে উপস্থিত ছিলেন, যা কিনা সংসদ এলাকা থেকে মোটামুটি এক ব্লক দূরে অবস্থিত সেইন্ট জর্জেস ক্যাথেড্রালে শনিবার অনুষ্ঠিত হয়।

ইতিপূর্বে সংসদ চত্বরের ফটকের সামনে সাংবাদিকদের ডি লিলে বলেন যে, জাতীয় সংসদের পিছনে অবস্থিত একটি পুরনো সংসদ ভবনে আগুনটি সীমাবদ্ধ ছিল। আগুন জাতীয় সংসদ ভবনে ছড়িয়ে পড়েছে বলে ঘোষণা দেওয়ার পূর্বে তিনি বলেছিলেন যে, দমকলকর্মীরা “পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রেখেছে”।

কর্তৃপক্ষ আশঙ্কা করেছিল যে ভবনগুলির কিছু কিছু অংশ, যেগুলোর কোন কোনটা উনবিংশ শতাব্দীর শেষের দিকে নির্মাণ করা হয়েছিল, তাপের কারণে ধ্বসে পড়তে পারে।

পুলিশ চত্বরটি বেষ্টনী দ্বারা ঘিরে ফেলে এবং রাস্তা বন্ধ করে দেয়। টুটু’র প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে মানুষের রাখা ফুলের স্থানটির কাছেই ঘিরে ফেলা জায়গাগুলোর কয়েকটা ছিল।

XS
SM
MD
LG