অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

২০১৯ সালের হত্যাকাণ্ড ঘটানোর কারণে রাশিয়ার দুইজন কূটনীতিককে বহিষ্কার করছে জার্মানি


ফাইল ছবিতে দেখা যাচ্ছে, জর্জিয়ার দুইসি গ্রামে মানুষ জেলিমখান খানগোশভিলির মৃতদেহ দাফন করতে নিয়ে যাচ্ছে। আগস্ট ২৯, ২০১৯।

জার্মানি রাশিয়ার দুইজন কূটনীতিককে বহিষ্কার করছে। রাশিয়ার নির্দেশে ২০১৯ সালে বার্লিনে চেচেন বংশোদ্ভুত জার্মানির একজন নাগরিককে হত্যা করা হয়েছে-- জার্মানির একটি আদালতের এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে দেশটি ঐ দুই কূটনীতিককে বহিষ্কার করছে।

গুরুত্বপূর্ণ এই ঘটনায় বার্লিনের একটি পার্কে জেলিমখান "টর্নিক" খানগোশভিলিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল।

জার্মানির একটি আদালত বুধবার খানগোশভিলিকে হত্যার জন্য রাশিয়ার ভাদিম ক্রাসিকভকে দোষী সাব্যস্ত করে এবং তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়। আদালত জানায় যে, রুশ কর্তৃপক্ষের হয়ে ক্রাসিকভ কাজ করেছে এবং তারা তাকে মিথ্যা পরিচয় পত্র ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সরবরাহ করেছে।

দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক, ঐ হত্যাকাণ্ডকে "জার্মান আইন এবং ফেডারেল রিপাবলিক অফ জার্মানির সার্বভৌমত্বের গুরুতর লঙ্ঘন" বলে অভিহিত করেন। তিনি মামলাটি নিয়ে আলোচনা করতে এবং ঐ দুইজন কূটনীতিককে বহিষ্কার করার জন্য রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতকে তলব করেন।

২০০৪ সালে রাশিয়ার একটি থানায় হামলার সঙ্গে খানগোশভিলি জড়িত ছিল। ঐ হামলায় পুলিশ এবং বেশ কয়েকজন বেসামরিক মানুষ নিহত হয়।

XS
SM
MD
LG