অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনকে রক্ষা করতে 'চড়া অর্থনৈতিক মূল্য' দিতে প্রস্তুত জার্মানি


রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রেস সার্ভিস প্রকাশিত এই ছবিতে, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ এবং জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক রাশিয়ার মস্কোতে তাদের আলোচনার পর একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে যোগ দিতে পৌঁছেছেন। মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী,

লন্ডন - জার্মানি বলেছে, তারা তাদের মূল্যবোধ রক্ষা করার জন্য "চড়া অর্থনৈতিক মূল্য" দিতে প্রস্তুত। এ দিকে নেটো সদস্যরা ইউক্রেনের সীমান্তের কাছাকাছি রাশিয়ান সেনা মোতায়েনের ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ব্যাপক কূটনীতির তৎপরতার মধ্যে দিয়ে আরেকটি সপ্তাহে পার করলো।

রাশিয়া ইউক্রেনে আগ্রাসন চালালে, পশ্চিমা দেশগুলোও তাকে পঙ্গু করে দেবার মতো কঠোর নিষেধাজ্ঞার হুমকি দিয়েছে।

রাশিয়া তার পশ্চিম অঞ্চলে ইউক্রেনিয়ার সীমান্তের প্রায় দশ কিলোমিটারের মধ্যে, ট্যাঙ্ক এবং অন্যান্য ভারী অস্ত্রসহ ১ লক্ষ সৈন্য মোতায়েন করেছে। কিয়েভ এবং তার পশ্চিমা মিত্ররা এতে আশঙ্কা করছে যে, আরেকটি আক্রমণ আসন্ন। যদিও ক্রেমলিন দাবি করছে, তাদের সেনা মোতায়েনের উদ্দেশ্য নেটোর সম্প্রসারণ থেকে নিজেদের রক্ষা করা।

এইরকম এক উত্তেজনাপূর্ণ পটভূমিতে, জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক মঙ্গলবার মস্কোতে রাশিয়ান পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই লাভরভের সাথে সাক্ষাত করেন এবং বলেন, জার্মানি ইউরোপের মৌলিক মূল্যবোধ রক্ষা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ৷

গত বছর ডিসেম্বরের শুরুতে চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মার্কেলের কাছ থেকে দায়িত্ব বুঝে নেয়া জোট সরকারের অংশ গ্রীন পার্টির প্রতিনিধিত্ব করছেন বেয়ারবক। তিনি ইউরোপের পূর্ব প্রান্তে ক্রমবর্ধমান সংকটের মুখোমুখি হচ্ছেন ।

বেয়ারবক বলেন, “কোন বোধগম্য কারণ ছাড়াই সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলিতে ট্যাঙ্ক এবং বন্দুক সহ এক লক্ষেরও বেশি রাশিয়ান সৈন্য ইউক্রেনের কাছে জড়ো হয়েছে। এটিকে হুমকি হিসাবে না দেখা সম্ভব নয়”।

তবে ল্যাভরভ তাঁর এই উদ্বেগকে নাকচ করে দিয়েছেন।

বৈঠকের পর লাভরভ সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা কাউকে কোনো কিছু দিয়ে হুমকি দিই না, বরং আমরা শুনতে পাচ্ছি আমাদের হুমকি দেয়া হচ্ছে”। তিনি আরও বলেন, “আমরা সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ অনুযায়ী কাজ করব। আর আমাদের সহযোগীরা কী দৃঢ় পদক্ষেপ নেয়, তার উপর আমাদের প্রতিক্রিয়া স্পষ্টতই অনুমান করা যাবে”।

XS
SM
MD
LG