অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারকারী শেষ ফ্লাইটগুলো হবে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ


যুক্তরাষ্ট্রের বিমান উড়ানের সময় কাবুল বিমান বন্দরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রহরারত সৈন্য

আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারকারী আমেরিকান শেষ ফ্লাইটগুলো – সম্ভবত মঙ্গলবার – সব চেয়ে বেশি বিপজ্জনক অবস্থায় থাকছে। পশ্চিমি সামরিক কর্মকর্তারা বলছেন, তারা যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্যদের অবশিষ্টাংশ সে দেশ থেকে বহন করে আনবে এবং তাদের সুরক্ষার জন্য ভূমিতে আর কোন সৈন্য থাকছে না।

আমেরিকান এবং ব্রিটিশ কর্মকর্তারা বলছেন সর্ব শেষ প্রহরার ব্যবস্থা তুলে নেয়ার পর বিমান বন্দর থেকে বিমানগুলোর উড়ানের সময়ে তাদেরকে নির্ভর করতে হবে তালিবান যোদ্ধাদের উপর এটা নিশ্চিত করতে যে ইসলামি স্টেট খোরাসান বা আইসিস-কে বিমান বন্দরে কোন রকেট বা মর্টার হামলা চালাচ্ছে না।

ব্রিটেনের ডিফেন্স স্টাফ প্রধান জেনারেল নিক কার্টার শনিবার বলেন সকলের জানা প্রয়োজন যুক্তরাষ্ট্রের শেষ বিমানগুলো নিরাপদে আফগানিস্তান ত্যাগ করার নিশ্চিত করতে যুক্তরাষ্ট্রের কমান্ডার ও সৈন্যদের কি দূর্দান্ত পরীক্ষা দিতে হচ্ছে। ব্রিটেনের স্কাই নিউজকেও তিনি বলেন,“শেষ বিমানটির আফগানিস্তান ত্যাগের কথা ভাববো এবং সেই সাহসী লোকদের জন্য এটা যে কত বড় চ্যালেঞ্জ আমরা রুদ্ধ শ্বাসে সেই কথা ভাববো”।

ব্রিটেন শনিবার তার উদ্ধার অভিযান শেষ করে ফেলবে তবে শেষ ব্রিটিশ বিমানটি যুক্তরাষ্ট্রের স্থলবাহিনীর কড়া নজরদারিতে বিমান বন্দর ত্যাগ করবে। বিমান আন্দরের অদূরে বুহস্পতিবার ইসলামিক স্টেটের আত্মঘাতী বোমা হামলায় ১৩ জন আমেরিকান সৈন্য এবং কমপক্ষে ১৭০ জন আফগান অসামরিক নাগরিক প্রাণ হারায়। পেন্টাগন বলছে ঐ হামলায় অন্তত ১৮ জন সৈন্য আহত হয়েছে।

তালিবান কর্মকর্তারা বলছেন নিহত আফগান নাগরিকদের অনেকেরই মরদেহ নর্দমায় ফেলে দেওয়া হয় এবং ঐ ঘটনায় কমপক্ষে ২০০ জন আফগান নাগরিক আহত হয়।

XS
SM
MD
LG