অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

৭ কোটি মানুষ কোভিডের পূর্ণ ডোজ টিকা পেয়েছেন: পাকিস্তান 


ফাইল ছবি,পাকিস্তানের ইসলামাবাদের একটি টিকা কেন্দ্রে একজন মহিলাকে ফাইজার কোভিড টিকা দিচ্ছেন একজন মহিলা স্বাস্থ্য কর্মী, ৪ঠা অক্টোবর, ২০২১, ছবি/রহমত গুলি/এপি

ফেব্রুয়ারীতে শুরু হওয়া টিকাদান কর্মসূচীতে শুক্রবার পর্যন্ত ১৫ কোটি ৫০ লক্ষ ডোজ কোভিডের টিকা দেওয়া হয়েছে, যার ফলে ৭ কোটি মানুষ বা দেশটির জনসংখ্যার ৩০% পূর্ণ ডোজ টিকা পেয়েছেন বলে জানিয়েছে পাকিস্তান।

প্রায় ২২ কোটি জনসংখ্যা অধ্যুষিত দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটিতে ২০২০ এর শুরুর দিকে প্রথম কোভিড রোগী শনাক্ত হয় এবং তখন থেকে সেখানে প্রায় ১৩ লক্ষ মানুষ রোগটিতে আক্রান্ত হয়েছেন এবং প্রায় ২৯,০০০ মানুষ মারা গিয়েছেন তবেপুরো সময়েই স্বাস্থ্য পরিস্থিতি মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে ছিল।

পাকিস্তানের মহামারী ব্যবস্থাপনা পর্যবেক্ষণকারী ন্যাশনাল অপারেশন এ্যান্ড কমান্ড সেন্টার ‘এর প্রধান, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন মন্ত্রী আসাদ উমার একটি টুইটের মাধ্যমে জানান “টিকার জন্য যোগ্য বিবেচিত [১২ বছর এবং তদূর্ধ বয়সী] জনসংখ্যার ৪৬% পূর্ণ টিকার আওতায় এসেছেন এবং ৬৩% অন্তত এক ডোজ টিকা পেয়েছেন”।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক বিশেষ সহকারী ফয়সাল সুলতান টুইট করেন যে, সরকার মে মাসে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে এবং “দেশজুড়ে অগণিত কর্মী, জনগণ এবং নেতৃবৃন্দের সহায়তায়” সেটি অর্জন করেছে।

কর্মকর্তারা জানান যে পাকিস্তান এ পর্যন্ত মোট ২৪ কোটি ৭০ লক্ষ ডোজ কোভিড-১৯ এর টিকা পেয়েছে। সরকার ১৫ কোটি ৭০ লক্ষ ডোজ টিকা ক্রয় করেছে এবং ৭ কোটি ৮০ লক্ষ ডোজ টিকা কোভ্যাক্স ডোজ-শেয়ারিং কার্যক্রমের আওতায় পাওয়া গিয়েছে, যার মধ্যে ৩ কোটি ২৬ লক্ষ ডোজ যুক্তরাষ্ট্রের অনুদান এবং প্রায় ৯০ লক্ষ ডোজ চীনের অনুদান।

জাতিসংঘ এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক সহযোগীরা মহামারী মোকাবেলায় পাকিস্তানের কার্যকর পদক্ষেপের বিষয়টি স্বীকার করে। উদাহরণ স্বরূপ গণটিকা কার্যক্রমের মাধ্যমে শিশুদের পোলিও এবং অন্যান্য সংক্রামক রোগের টিকাদানে দেশটির সাফল্যের বিষয়টি উল্লেখ করেছে।

XS
SM
MD
LG