অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আগামীকাল পশ্চিমবঙ্গের তিন বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন


রাত পোহলেই আগামীকাল পশ্চিমবঙ্গের তিন বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন। তার আগে গতকাল শনিবারই ছিল প্রচার শেষের শেষ দিন আর তাতেই জমে উঠেছে পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক তরজা।

রাজ্যের তিন বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন নিয়ে শুরু হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপির অভিযোগ, পালটা অভিযোগের পালা। তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব ও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ, ‘সিআরপিএফ তো ছিলই। আবার পাঁচ ব্যাটালিয়ন কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানো হবে কেন? এটা অন্যায়। নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়েই তো প্রশ্ন উঠে যাচ্ছে।’ পালটা বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় বলেন, ‘ভোটে হারার ভয় থেকেই এসব বলছে তৃণমূল। এটা হাস্যকর।

’প্রসঙ্গত বলা যেতে পারে রাজ্যের তিন জেলার তিনটি বিধানসভা কেন্দ্র করিমপুর, কালিয়াগঞ্জ ও খড়গপুর সদর আগামীকাল এই তিন বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন। করিমপুরের প্রাক্তন বিধায়ক মহুয়া মৈত্র কৃষ্ণনগরের সাংসদ নির্বাচিত হওয়ায় আসনটি ফাঁকা হয়। খড়গপুরের প্রাক্তন বিধায়ক ও বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও লোকসভা ভোটে জিতে যাওয়ায় আসনটি ফাঁকা হয়। আর উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জের কংগ্রেস বিধায়ক প্রমথনাথ রায় মারা যান চলতি বছরেই। ফলে সেই আসনেও উপনির্বাচন।

কিন্তু রাজনৈতিক মহলের মত, তিন আসনের মধ্যে অন্তত দু’টি আসনে বিজেপির কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে পারে তৃণমূল।তিন কেন্দ্রের নির্বাচন দেখভালের জন্য আগেই তিনজন পুলিশ পর্যবেক্ষক নিয়োগ করেছে কমিশন। এছাড়া তিন কেন্দ্রের জন্যই সাধারণ পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:02 0:00


XS
SM
MD
LG