অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে সাক্ষাত করলেন সিআইএ প্রধান  


ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল

গতকাল দিল্লিতে বৈঠক করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সিআইএ প্রধান উইলিয়াম বার্নস। দু'জনের মধ্যে কী কথা হয়েছে তা প্রকাশ করা না হলেও ওয়াকিবহাল সূত্রে জানা গিয়েছে যে আলোচ্য বিষয় ছিল আফগানিস্তান।

যুক্তরাষ্ট্র চাইছে, ভারত আফগানিস্তান থেকে যা কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাবে তা যেন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আদান-প্রদান করা হয়। বার্নস যে দিন দিল্লিতে এসেছেন, সেইদিনই আফগানিস্তানে তালিবান সরকার গঠন করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন এফবিআই এবং জাতিসঙ্ঘ যাঁকে জঙ্গি তালিকাভুক্ত করেছে, সন্ত্রাসবাদী বলে চিহ্নিত করেছে, তিনিই আফগান সরকারের প্রধান পদে বসেছেন। এতে পাকিস্তানের হাত রয়েছে বোঝা যাচ্ছে। স্বভাবতই ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও রাশিয়া এতে উদ্বিগ্ন।

সিআইএ প্রধান উইলিয়াম বার্নসের সঙ্গে বৈঠকের আগের দিন অজিত দোভালের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থা এম আই-সিক্স প্রধান রিচার্ড মুর। আর আজ বুধবার অজিত দোভালের সঙ্গে আলোচনায় বসেন রাশিয়ার নিরাপত্তা আধিকারিক নিকোলাই পাত্রুশেভ। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের আস্থাভাজন ও ঘনিষ্ঠ পাত্রুশেভ দোভালের সঙ্গে বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গেও দেখা করেন।

পরপর এই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকগুলোতে বোঝা যাচ্ছে, কিছু রাষ্ট্র আফগানিস্তানের ঘটনাবলী নিয়ে অত্যন্ত চিন্তিত এবং প্রতিবেশী দেশ ভারতের উপর তারা অনেকটাই ভরসা করছে।

রাশিয়ায় নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত ভেঙ্কটেশ ভার্মা বলেছেন, দোহায় সম্প্রতি তালিবান দূতের সঙ্গে ভারতের কথাবার্তায় আকাঙ্খিত ফল পাওয়া যায়নি। সুতরাং ভারত উদ্বিগ্ন বোধ করছে এবং পাকিস্তানের সঙ্গে তালিবানের ঘনিষ্ঠতায় সেই উদ্বেগ আরও বেড়েছে। একই মত পোষণ করছে ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া। বার্নসের সঙ্গে আলোচনার সময় দোভাল বলেছেন, সর্বত্র পাকিস্তান ভারতের প্রতি তার ঘৃণার মনোভাব অব্যাহত রেখেছে। তালিবানের ওপর তার ছাপ পড়তেই পারে, ফলে ভারতের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে। সিআইএ প্রধান উইলিয়াম বার্নস এইজন্যই চাইছেন, আফগানিস্তান সম্পর্কে ভারত যা কিছু তথ্য জোগাড় করতে পারবে তা যেন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিনিময় করে।

XS
SM
MD
LG