অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতে নয় বছরের মেয়েকে ধর্ষণ ও হত্যা: প্রতিবাদের ঝড়


ধর্ষণের বিরুদ্ধে নতুন দিল্লিতে প্রতিবাদ (এএফফি)

অস্থায়ী একটি মঞ্চে বসা প্রতিবাদকারিরা ঐ মেয়ের পক্ষে বিচারের দাবি করেন। মেয়েটি এই এলাকার কাছেই বাস করতো। এই ঘটনা ভারতে নারীদের উপর নৃশংস যৌন অপরাধের  বিরুদ্ধে এবং সে দেশের কঠোর বর্ণ প্রথায় আবদ্ধ নিম্নবর্ণের লোকদের উপর নির্যাতনের বিরুদ্ধে নতুন করে ক্ষোভের সঞ্চার করেছে। এই মেয়েটিও নিম্নবর্ণভুক্ত ছিল ।

বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা আজ নতুন দিল্লিতে একটি শশ্মানের বাইরে প্রতিবাদ জানিয়েছে। তারা বলছে সেখানে এ সপ্তাহের গোড়ার দিকে ৯ বছরের একটি মেয়েকে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়।

অস্থায়ী একটি মঞ্চে বসা প্রতিবাদকারিরা ঐ মেয়ের পক্ষে বিচারের দাবি করেন। মেয়েটি এই এলাকার কাছেই বাস করতো। এই ঘটনা ভারতে নারীদের উপর নৃশংস যৌন অপরাধের বিরুদ্ধে এবং সে দেশের কঠোর বর্ণ প্রথায় আবদ্ধ নিম্নবর্ণের লোকদের উপর নির্যাতনের বিরুদ্ধে নতুন করে ক্ষোভের সঞ্চার করেছে। এই মেয়েটিও নিম্নবর্ণভুক্ত ছিল ।

পুলিশ কর্মকর্তা ইঙ্গিত প্রতাপ সিং বলেছেন এই অপরাধে সন্দেহভাজন চারজন , যারা সকলেই ঐ শ্মশানের কর্মি , তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তবে এখনও তাদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। পুলিশ বলেছে মেয়েটি রবিবার তার মাকে বলে যে সে কলের জল আনতে ঐ শ্মশানে যাচ্ছে । প্রায় ৩০ মিনিট পর, পুলিশ বলছে, ঐ শ্মশানের পুরোহিত মা কে ফোন করে জানান যে তার মেয়ে বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হয়েছে।

পুলিশ বলছে মাকে তার মেয়ের মরদেহ দেখানো হয় তারপর সন্দেহভাজনরা কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই মরদেহটি দাহ করে। মা বলেন যে তিনি তার মেয়ের দেহে একাধিক ক্ষতচিহ্ন দেখতে পান। তিনি আরও বলেন যে ঐ পুরোহিত এবং আরও তিনজন পুলিশকে জানাতে তাকে বারণ করে এবং হুমকি দেয়। ভারতীয় আইন অনুযায়ী মায়ের নাম উল্লেখ করা যাবে না কারণ এর ফলে যৌন অপরাধের শিকার ব্যক্তির পরিচয় বেরিয়ে পড়তে পারে। পুলিশ বলছে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা তার কাপড়-চোপড় পরীক্ষা করে দেখছে। সন্দেহভাজনরা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে তবে পুলিশের তদন্ত শেষ না হলে তাদের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আনা যাচ্ছে না।

XS
SM
MD
LG