অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আমেরিকান কোম্পানি থেকে জীবন বীমার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য কোবরার বিষ দিয়ে হত্যা


গ্রেফতার হওয়া প্রভাকর ভিমাজি ওয়াঘচৌরে ও তার সহযোগীরা - ফটো- দ্য ওয়াল

সোমবার ভারতের আহমেদনগরের এস পি মনোজ পাতিল জানিয়েছেন, কোবরার বিষে খুনের ছক কষে জীবন বীমার টাকা আদায়ের চেষ্টায় সন্দেহভাজন প্রভাকর ভিমাজি ওয়াঘচৌরে ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর অভিনব কৌশলের খুনের ছক কষেছিলেন প্রভাকর ভিমাজি ওয়াঘচৌরে। ৫৪ বছর বয়সি প্রভাকর দীর্ঘদিন আমেরিকায় বাস করতেন। গত জানুয়ারি মাসে দেশে ফিরে মহারাষ্ট্রের আহমেদনগরে বাস শুরু করেন প্রভাকর। তারপরই সে আমেরিকার এক জীবন বীমা কোম্পানি থেকে তাঁর নামের সাড়ে ৩৭ কোটি রুপি আদায়ের ছক কষতে থাকেন।

পরিকল্পনার ফলস্বরূপ কোবরার বিষের আইডিয়া মাথায় আসে তার। এই কোবরা বিষ দিয়ে এক ব্যক্তিকে খুন করে, নিজের নামে চালানোর চেষ্টা করেন প্রভাকর। গত এপ্রিল মাসে স্থানীয় হাসপাতাল থেকে রাজুর থানায় খবর আসে কোবরার ছোবলে প্রভাকরের মৃত্যুর কথা।

পুলিশ সূত্রে আরও খবর, সেইসময় তদন্তে নেমে জানা যায় প্রভাকরের ভাগ্নের পরিচয়ে প্রবীণ নামে এক ব্যক্তি মৃতদেহকে প্রভাকর ভিমাজি ওয়াঘচৌরে হিসেবে শনাক্ত করেন। এক স্থানীয়ও একই শনাক্ত করে। ফলে প্রভাকর ভিমাজি ওয়াঘচৌরকে মৃত বলেই ঘোষণা করে হাসপাতাল ও পুলিশ।

এরপরই প্রভাকরের পরিবারের তরফে জীবন বীমার টাকা চাওয়া হয় আমেরিকার ওই কোম্পানির কাছে। কিন্তু কোম্পানি, জীবন বীমার ওই টাকা দেওয়ার আগে, ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য স্থানীয় পুলিশের কাছে তদন্তের দাবি জানায়।

তদন্তে নামার পরই সামনে আসে এই ঘটনা। পুলিশ জানিয়েছে, স্থানীয়দের কাছে খোঁজখবর করে জানা যায় যে কোনও রকম সাপের কামড়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। তবে প্রভাকরের বাড়িতে একটি অ্যামবুলেন্সকে আসতে দেখা গেছে বলে জানায়। সন্দেহ হয় পুলিশের। তখনই যে স্থানীয় প্রভাকরকে মৃত বলে শনাক্ত করেছিলেন তার খোঁজ চালায় পুলিশ। জানা যায় প্রবীণ নাকি করোনায় মারা গেছে!

সন্দেহ আরও বাড়ে পুলিশের। প্রভাকরের আত্মীয়র সন্ধান শুরু করে পুলিশ। সেখান থেকে প্রভাকরের ফোন নম্বর জোগাড় করে ট্র্যাক করা শুরু করে। আর তাতেই বেরিয়ে আসে প্রভাকর ভিমাজি ওয়াঘচৌরে জীবিত।

পুলিশ আরও জানতে পারে, সেইসময় প্রভাকরের মৃতদেহ হিসেবে যার কথা বলা হয়েছিল তাঁর নাম নাবন্থ যশবন্ত আনাপ, বয়স ৫০ বছর। একই এলাকায় প্রভাকরের সঙ্গে বাস করতেন তিনি। ঘটনার দিন প্রভাকর জোর করে ডেকে পাঠায় আনাপকে। সেখানেই তাঁকে অজ্ঞান করে পায়ে কোবরা বিষ দেওয়া হয়।

এই ষড়যন্ত্রের পেছনে থাকা প্রভাকর ভিমাজি ওয়াঘচৌরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সঙ্গে আরও চারজন যাঁরা এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত ছিল তাঁদেরকেও গ্রেফতার করা হয়। জানা গেছে, তাদেরকে ৩৫ লাখ রুপি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল প্রভাকর।

XS
SM
MD
LG