অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের জলপাইগুড়িতে বেপরোয়া বাস চালককে শায়েস্তা করলেন নারী পুলিশ


কনস্টেবল ফাল্গুনী রায়- ফটো- দ্য ওয়াল

লেডি কন্সটেবলকে পাত্তা না দিয়ে নো এন্ট্রি জোনে বাস ঢুকিয়েছিলেন ড্রাইভার। দৌড়ে গিয়ে ড্রাইভারের লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত করে যাত্রী সমেত বাস আটক করে থানায় উপস্থিত হলেন সেই কন্সটেবল।

জলপাইগুড়িতে বাসচালকদের একাংশ ইদানিং 'নো এন্ট্রি' মানছেন না বলে অভিযোগ উঠছে। তার জেরেই শহরে প্রতিদিন ব্যাপক যানজট। হয়রানির শিকার হচ্ছেন পথচলতি সাধারণ মানুষ।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, সোমবার দুপুরে জলপাইগুড়ির কদমতলায় শিলিগুড়ি-হলদিবাড়ি রুটের একটি বাস ঢুকে যায়। ওই সময় কদমতলা এলাকায় ট্রাফিক সামলাচ্ছিলেন লেডি কন্সটেবল ফাল্গুনী রায়। তিনি বাসচালকে বারবার সর্তক করার পরও কাজ হয়নি। বাসচালক মহিলা পুলিশ দেখে পাত্তা না দিয়ে শিলিগুড়ির দিকে বাসটিকে নিয়ে যেতে থাকেন বলে অভিযোগ। যার ফলে ব্যাপক যানজট তৈরি হয়। প্রচুর গাড়ি আটকে পড়ে রাস্তার মুখে।

এরপর মহিলা পুলিশ দৌড়ে গিয়ে বাসটিকে দাঁড় করান। ড্রাইভারের লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত করেন। যাত্রী সমেতই বাসটি আটক করে সদর ট্রাফিক অফিসে নিয়ে আসেন। পরে আইন অনুযায়ী নির্দিষ্ট জরিমানা করে বাসটিকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

এদিকে অভিযুক্ত বাসচালক মতিলাল সরকারের দাবি, কদমতলা মোড়ে যাত্রী নামাতে গিয়ে বাস ঘোরাতে হয়েছিল। নির্দেশ অমান্য করেননি তিনি।

যানজট সমস্যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই নাজেহাল শহরবাসী। একদিকে রাস্তা সরু অন্যদিকে ফুটপাত দখল করে চলছে ব্যবসা ও গাড়ি পার্কিং। এই কারণে কালীপুজা পর্যন্ত জলপাইগুড়ি শহরে বাস ও ছোট গাড়ি চলবে না এমনটাই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে প্রশাসন। এদিকে প্রশাসনের এই নির্দেশ মানতে চাইছেন না গাড়ি চালকরা, এমনটাই অভিযোগ।

সেই পরিস্থিতি কড়া হাতে সামলে এদিন উদাহরণ গড়লেন জলপাইগুড়ির মহিলা কনস্টেবল ফাল্গুনী রায়। তাঁকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিল সদর ট্রাফিক।

XS
SM
MD
LG