অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর আবেদন পুনর্বিবেচনার কোনো সুযোগ নেই - আইনমন্ত্রী আনিসুল হক


বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর আবেদনে সাড়া দেবে না সরকার।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সোজাসাপ্টা বলেছেন, খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর আবেদন পুনর্বিবেচনার কোনো সুযোগ নেই। বর্তমানে খালেদা জিয়া বিশেষ জামিনে রয়েছেন। আইনমন্ত্রী বলেন, বিদেশে যেতে চাইলে তাকে স্বেচ্ছায় কারাগারে যেতে হবে। তারপর আবেদন করতে হবে। মন্ত্রী এটাও বলেন, আবেদন করলেই যে অনুমোদন পাবে তা কিন্তু নয়। সেটা সরকারের বিবেচনার ওপর নির্ভর করবে।

খালেদা জিয়ার পরিবারের তরফে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একাধিকবার আবেদন জানানো হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে বিদেশে পাঠানোর আর্জি জানানো হয় আবেদনে। দুর্নীতির দুই মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে গত বছর ২৫শে মার্চ তাকে শর্ত সাপেক্ষে ৬ মাসের জামিন দেয়া হয়। এ নিয়ে তার জামিনের মেয়াদ তিন দফা বাড়ানো হয়। আগামী ২৪শে সেপ্টেম্বর তার জামিনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। এই অবস্থায় আইন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে খালেদার সাজা স্থগিত ও মুক্তির মেয়াদ আরও ৬ মাস বাড়ানোর মতামত দেয়া হয়েছে। আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এটা নিশ্চিত করেছেন। বর্তমানে ফাইলটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ২০১৮ সনের ৮ই ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দেন ঢাকা ৫ নম্বর বিশেষ আদালত। এরপর তাকে নেয়া হয় পুরনো ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে।

হাইকোর্ট এই মামলার আপিলে তার সাজা আরও ৫ বছর বাড়িয়ে ১০ বছর করেন। একই বছর ২৯শে অক্টোবর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয় একই আদালত থেকে।

XS
SM
MD
LG