অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইন্দোনেশিয়ার আগ্নেয়গিরিতে আবারও অগ্ন্যুৎপাত, তল্লাশি তৎপরতা বিঘ্নিত


ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব জাভায় অবস্থিত মাউন্ট সেমেরু'র অগ্নুৎপাতের পর লুমাজাং'র সুম্বার উলুহ গ্রামে ছাই ও কাদায় আচ্ছন্ন একটি ট্রাক, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১, ছবি জাবুর কারুরু/রয়টার্স

সোমবার ইন্দোনেশিয়ার মাউন্ট সেমেরু থেকে আরো ছাইয়ের নিঃসরণ হতে থাকলে, জীবিতদের তল্লাশি ও উদ্ধারের কাজ ব্যাহত হয় এবং আকাশ থেকে ধারণকৃত ছবিতে সপ্তাহান্তের ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাতে ক্ষতি ও ধ্বংসের চিত্র উঠে আসেI

জাভা দ্বীপের আগ্নেয়গিরির পাহাড়টি শনিবার যেন আবার জীবন্ত হয়ে ওঠে, আকাশের উঁচুতে আগ্নেয়গিরির ছাই ও উত্তপ্ত লাভা ছড়িয়ে পড়লে লোকজন ভয়ে ঘরবাড়ি থেকে পালিয়ে যানI অন্তত ১৫ জনের মৃত্যু হয়I

আকাশ থেকে ধারণকৃত ছবিতে পুরো রাস্তাগুলিকে আগ্নেয়গিরির ধূসর ছাই ও কাদায় পরিপূর্ণ দেখা যায়, যা বহু বাড়ি এবং ট্রাকসহ বহু গাড়িকে আচ্ছন্ন করে রাখে I
ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় দুর্যোগ সংস্থা জানায় যে ২৭জন এখনো নিখোঁজ রয়েছেনI

সুম্বারউলুহ গ্রামের মাকসুর সুহরি, যিনি অগ্ন্যুৎপাতের সময় পাম রস সংগ্রহ করছিলেন,বলেন, "আমার ছেলেকে পাওয়া যাবে বলে আমি আশাবাদীI যখনই শুনি কাউকে উদ্ধার করা হয়েছে, ভাবি এটা নিশ্চয়ই আমার ছেলেI তার বেঁচে থাকার সম্ভাবনা খুবই কম, তবে সেটা আমার ছেলের ভাগ্যI তবে আমি এখনো আশাবাদী যে তাকে খুঁজে পাওয়া যাবে, কিছু না হলেও অন্তত তার দেহটা"I

সোমবার নতুন করে আগ্নেয়গিরির উৎসরণ, তল্লাশি তৎপরতা ব্যাহত করে এবং অনেক এলাকায় তল্লাশি দলকে উদ্ধার কাজ থেকে সরে দাঁড়াতে হয়I

যেসব এলাকা আগ্নেয়গিরির ছাইয়ে আচ্ছাদিত হয়ে রয়েছে, সেসব এলাকা থেকে বিপজ্জ্বনককালো ধোয়াঁ বেরোচ্ছেI তবে এর মাঝেই শক্ত টুপি পরিধান করে তল্লাশি কর্মীরা কাদা থেকে জীবিতদের খোঁজা এবং উদ্ধারের প্রয়াস বজায় রেখেছেনI তবে আগ্নেয়গিরির ধ্বংসাবশেষ শক্ত হতে শুরু করায়, তাদের উদ্ধার কাজ আরো জটিল হয়ে উঠছে I

XS
SM
MD
LG