অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

লক্ষ লক্ষ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে কেমন আছেন, কিভাবে আছেন তা জানার চেষ্টা করবেন পোপ ফ্রান্সিস। রাজধানী ঢাকায় রোহিঙ্গাদের একটি ছোট্ট গ্রুপকে নিয়ে আসা হচ্ছে এক আন্তঃধর্মীয় সমাবেশে। সেখানেই পোপ ফ্রান্সিস তাদের সঙ্গে কথা বলবেন। আর এটা হবে ১লা ডিসেম্বর সকালে। আগে ঘোষিত সফরসূচিতে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সঙ্গে সাক্ষাতের কথা ছিল না।

বুধবার সন্ধ্যায় ভ্যাটিকানের মুখপাত্র গ্রেগ বার্গ এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। আগামী ৩০শে নভেম্বর পোপ ফ্রান্সিস তিন দিনের এক সফরে ঢাকা আসছেন। পোপ ঢাকা আসার আগে মিয়ানমার সফর করবেন। সেখানে মিয়ানমার সেনা প্রধানের সঙ্গেও একান্ত সাক্ষাতে মিলিত হবেন। ওদিকে বাংলাদেশ সফরে আসার আগে পোপ ফ্রান্সিস এ দেশের জনগণকে শুভেচ্ছা ও বন্ধুত্বের বার্তা পাঠিয়েছেন। এক ভিডিও বার্তায় পোপ বলেছেন, বাংলাদেশের জনগণের সঙ্গে মিলিত হতে এবং তাদেরকে যীশুর পুনর্মিলন, ক্ষমা এবং শান্তির বাণী শোনানোর অপেক্ষায় আছেন।

ঢাকায় অবস্থানকালে তিনি সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন। ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন। এছাড়া বাংলাদেশের খ্রিস্টান ধর্মালম্বীদের উপাসনা অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। প্রায় একশ’রও বেশি বিদেশি সাংবাদিক পোপের এ সফর কাভার করতে ঢাকা আসছেন। ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী

XS
SM
MD
LG