অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিয়ানমারের কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ অভিযান আবারও জটিলতার মুখে


মিয়ানমারের নেপিদতে, ভ্যাকসিন কেন্দ্রে এক ব্যক্তি ভ্যাকসিন নিচ্ছেন, ফাইল ছবি, ২৯শে জানুয়ারী,২০২১-এপি


ফেব্রুয়ারির সামরিক অভ্যুথানের প্রতিক্রিয়ার মাঝেই মিয়ানমার কোভিড-১৯ মোকবিলায় আরো জটিলতার মুখোমুখি হয়েছে

এই সপ্তাহে বিরোধী জাতীয় ঐকমত্যের সরকার(NUG) ক্ষমতাসীন সামরিক জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে "প্রতিরোধ যুদ্ধ" ঘোষণা করেছেI আগামী সপ্তাহে জাতিসংঘে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৭৬তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশন, যেখানে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে সামরিক জান্তা, নাকি বেসামরিক সরকারকে জাতিসংঘের আসনের জন্য স্বীকৃতি দেয়া হবে I

ক্রমবর্ধমান রাজনৈতিক উত্তেজনার মাঝেই, দেশটি কোভিড-১৯ এর তৃতীয় ঢেউ মোকাবেলা করছে I বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরিসংখ্যান অনুযায়ী মিয়ানমারে ৪ লক্ষ লোক সংক্রমিত হয়েছেন এবং ১৬,০০০ 'র বেশি লোক সেখানে প্রাণ হারিয়েছেন।তবে উদ্বেগ রয়েছে যে, সেই সংখ্যা আরো বেশি হতে পারেI

শুধু এক নামে পরিচিত, "সাসা" নামের চীন রাজ্যের একজন চিকিৎসক এবং NUG 'র আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ে মন্ত্রী, ভয়েস অব আমেরিকাকে জানান, সরকারিভাবে রেকর্ডকৃতদের চাইতে আরও কয়েক হাজার বেশি লোক সংক্রমণে মারা গেছেনI

তিনি বলেন, "আমরা ৪০ হাজার থেকে ৪ লক্ষের মত লোকের মৃত্যুর হিসাব করছি, মৃত্যুর যে কি হার, তা বোঝা একেবারেই অসম্ভব। মিয়ানমারের জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক, ৩ কোটি ৫০ লক্ষ থেকে ৩ কোটি ৭০ লক্ষ লোক কোভিড-১৯ ‘এ সংক্রমিত হয়ে থাকতে পারেন, ভিডিও কলে তিনি বলেন, "সেটাই পরিস্থিতির সত্যিকারের পরিমাপ"।

তিনি আরো বলেন, "এতো লোকের মৃত্যু হয়েছে যে, আমাদের পক্ষে, কোনোভাবেই তা গণনা করা সম্ভব নয়। গত কয়েক মাস ধরে সর্বত্রই চোখে পড়েছে শুধু অক্সিজেনের জন্য লাইন, শুধু গোরস্থানের দিকে মানুষের লাইন"I

XS
SM
MD
LG