অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জাতিসংঘে মিয়ানমারের প্রতিনিধির অভিযোগ: সামরিক বাহিনী নিধনযজ্ঞ চালাচ্ছে


ফাইল ফটো: বিদ্রোহী কাচিন বাহিনী (এএফপি)

কিয়াও মো তুন লেখেন যে জুলাই মাসের প্রথম দিকে কানি শহরতলীতে সৈন্যরা ১৬ জন লোককে নির্যাতন করে হত্যা করেছে আর এর ফলে ১০,০০০ লোক ঐ এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। কিয়াও মো তুন লিখেছেন মাসের শেষের দিকে নিরাপত্তা বাহিনী ও স্থানীয় যোদ্ধাদের মধ্যে সংঘাতের পর জি পিন তুইন গ্রামে ১৩টি মৃতদেহ পাওয়া যায়। তিনি আরও বলেন কিয়েতচং তাও তাইক গ্রামে আগুন লাগালে আরও ১১ জন প্রাণ হারায়।

জাতিসংঘে মিয়ানমারের দূত, মহাসচিব আন্তোনিও গুয়েতেরেসের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে এই অভিযোগ করেছেন যে গত মাসে দেশের উত্তরাঞ্চলে সামরিক বাহিনী উপর্যুপরি নিধনযজ্ঞ চালিয়েছে। জাতিসংঘে মিয়ানমারের মিশন মঙ্গলবারের তারিখে লেখা এই চিঠিটি তাদের ফেইসবুকে প্রকাশ করেছে।

ঐ চিঠিতে কিয়াও মো তুন লেখেন যে জুলাই মাসের প্রথম দিকে কানি শহরতলীতে সৈন্যরা ১৬ জন লোককে নির্যাতন করে হত্যা করেছে আর এর ফলে ১০,০০০ লোক ঐ এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। কিয়াও মো তুন লিখেছেন মাসের শেষের দিকে নিরাপত্তা বাহিনী ও স্থানীয় যোদ্ধাদের মধ্যে সংঘাতের পর জি পিন তুইন গ্রামে ১৩টি মৃতদেহ পাওয়া যায়। তিনি আরও বলেন কিয়েতচং তাও তাইক গ্রামে আগুন লাগালে আরও ১১ জন প্রাণ হারায়।

এই দূত মিয়ানমারের নির্বাচিত এবং সামরিক বাহিনী কর্তৃক ফেব্রুয়ারি মাসে ক্ষমতাচ্যূত অসামরিক সরকারের প্রতিনিধিত্ব করেন । সামরিক বাহিনী বলেছে তারা কিয়াও মো তুনকে বরখাস্ত করেছে কিন্তু জাতিসংঘ সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা গ্রহণকে স্বীকার করেনি এবং ঐ বিশ্ব সভায় তিনিই সে দেশের স্বীকৃত প্রতিনিধি।

কিয়াও মো তুন জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ান্মারের সামরিক বাহিনীর উপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞ আরোপের আহ্বান জানিয়েছেন। গুয়েতেরেসের কাছে লেখা ঐ চিঠিতে তিনি বলেন, “ জরুরি ভিত্তিতে এই সংকটের বিষয়ে চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেয়ার এখনই যথার্থ সময়”।

(এই সংবাদে এএফপি ও রয়টারের তথ্য রয়েছে)

XS
SM
MD
LG