অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

উত্তর কোরিয়া নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চলেছে


নিরাপত্তা পরিষদে গত শুক্রবার উস্থাপিত জাতিসংঘের একটি নতুন প্রতিবেদনে দেখানো হয়েছে যে উত্তর কোরিয়া এই ব্যাপারটি নিশ্চিত করছে যাতে করে কোন রকম সামরিক আক্রমণে তার অস্ত্র শস্ত্র ধ্বংস করা না যায়।

এটি এমন এক সময়ে আসলো যখন গত সপ্তায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে তাঁর আলাপ আলোচনায় , তাঁর কথায় , “ দারুণ অগ্রগতির” প্রশংসা করেন এবং গত রাতে দেয়া রাষ্ট্রীয় পরিস্থিতি সম্পর্কে তাঁর ভাষণে দ্বিতীয় শীর্ষ বৈঠকের তারিখও নির্ধারণ করেন । প্রেসিডেন্ট বলেন , “ সাহসী নতুন কুটনীতির অংশ হিসেবেই , আমরা কোরিয়ো উপদ্বীপে শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য আমাদের ঐতিহাসিক চাপ অব্যাহত রাখছি।

U.S. President Trump - SOTU
U.S. President Trump - SOTU

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অবশ্য স্বীকার করেন যে অনেক কাজই এখনো বাকি রয়ে গেছে এবং উত্তর কোরিয়ার নেতার সঙ্গে আগামি ২৭ ও ২৮ শে ফেব্রুয়ারি ভিয়েৎনামে পরবর্তী বৈঠকের দিন ধার্য করা হয়েছে।

তবে ৩১৭ পাতা্র জাতিসংঘের ঐ প্রতিবেদনে এ রকম প্রমাণ পাওয়া গেছে যে উত্তর কোরিয়া , বিমান বন্দরসহ অসামরিক স্থাপনাগুলো , ব্যালিস্টিক ক্ষেপনাস্ত্র তৈরি এবং পরীক্ষার জন্য ব্যবহার করছে যার মূল লক্ষ্য হচ্ছে এই সব অস্ত্র বিনষ্ট করার আক্রমণ প্রতিরোধ করা।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে উত্তর কোরিয়া , জাহাজ থেকে জাহাজে পেট্রলিয়াম পণ্য এবং কয়লা চালান দিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব লংঘন করে চলেছে।

XS
SM
MD
LG