অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

স্বল্প পাল্লার দুটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া


দক্ষিণ কোরিয়ার পূর্ব উপকূলে সিউলে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা সংক্রান্ত একটি সংবাদ প্রতিবেদন দেখছেন লোকজন। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১।

বুধবার উত্তর কোরিয়া স্বল্প পাল্লার দুটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে। এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে এটি ছিল তাদের দ্বিতীয় উৎক্ষেপণ এবং যুক্তরাষ্ট্রের ওপর কূটনৈতিক চাপ বাড়ানোর সর্বশেষ দৃশ্যমান প্রচেষ্টা।

দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী যারা এই ধরনের উৎক্ষেপণ পর্যবেক্ষণ করে থাকে তারা বলছে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রগুলি উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলে সমুদ্রে পড়ার আগে প্রায় ৮০০ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করে এবং ৬০ কিলোমিটার উচ্চতায় পৌঁছেছিল।

জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক জানিয়েছে যে ক্ষেপণাস্ত্রগুলি জাপানের ভূখণ্ডে প্রবেশ করেনি কিন্তু নিজস্ব অর্থনৈতিক অঞ্চলের বাইরে পড়েছে।

এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর ইন্দো-প্যাসিফিক কমান্ড বলেছে, এই উৎক্ষেপণ উত্তর কোরিয়ার অবৈধ অস্ত্র কর্মসূচির "অস্থিতিশীল প্রভাব" তুলে ধরেছে।

কোন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করা হয়েছে তা তাত্ক্ষণিক ভাবে স্পষ্ট নয়। ২০১৯ সাল থেকে উত্তর কোরিয়া বিভিন্ন ধরনের নতুন, স্বল্প পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে আসছে।

উত্তর কোরিয়া একটি নতুন দূরপাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর দাবি করার দুই দিন পরেই এই উৎক্ষেপণ করা হয়েছে। প্রায় ছয় মাসের মধ্যে এটি ছিল পিয়ংইয়ংয়ের প্রথম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা।

গত মাসের শেষের দিকে, জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বলেছে যে উত্তর কোরিয়া সম্প্রতি তার ইয়ংবিয়ান পারমাণবিক স্থাপনায় প্লুটোনিয়াম উৎপাদনকারী একটি পারমাণবিক চুল্লি পুনরায় চালু করেছে বলে মনে হচ্ছে।

কিছু বিশ্লেষক বলছেন, পারমাণবিক আলোচনা থেমে থাকা অবস্থায় উত্তর কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাদের দরকষাকষির সুবিধা পেতে এই পদক্ষেপগুলো নিয়েছে।প্রায়শই মৌখিক হুমকি বা অস্ত্র পরীক্ষার মাধ্যমে উত্তেজনা বাড়িয়ে তোলার পর উত্তর কোরিয়া কূটনীতিতে যুক্ত হয়।

সর্বসাম্প্রতিক এই উৎক্ষেপণটি উত্তর কোরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ দূত সুং কিম টোকিও সফরের সময় ঘটলো। সুং কিম দক্ষিণ কোরিয়া এবং জাপানে তাঁর সহপক্ষদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হচ্ছেন।

মঙ্গলবার,যুক্তরাষ্ট্রের দূত কোনরকম পূর্বশর্ত ছাড়াই আলোচনা পুনরায় শুরু করার জন্য ওয়াশিংটনের প্রস্তাব পুনরাবৃত্তি করে বলেন, "পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণে অগ্রগতি নির্বিশেষে" যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে মানবিক বিষয়ে কাজ করতে প্রস্তুত।

XS
SM
MD
LG