অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বেড়েই চলেছে বিশ্বজুড়ে ওমিক্রনে সংক্রমণ সংখ্যা


ফাইল ছবি, সিডনিতে জনগণ কোভিড পরীক্ষার জন্য গাড়িতে অবস্থান করছেন, ২৯শে ডিসেম্বর, ২০২১, ছবি/মিক টিসিকাস/এএপি/এপি

শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে পরিকল্পনা অনুযায়ীই নতুন বছরের আতশবাজি হয়েছে, যদিও দেশটির কিছু কিছু অংশে করোনাভাইরাসের নতুন প্রকরণ ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা রেকর্ড পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা নতুন বছরের আনন্দ উদযাপনকারীদের সতর্ক করে বলছেন যে এখন সময়টা অতিরিক্ত জনসমাগমে শামিল হওয়ার জন্য উপযুক্ত নয়।

জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন ও সার্জারীর অধ্যাপক ড. জনাথান রেইনার সিএনএন-কে বলেন, “আমার মনে হয় বর্তমানে আমরা আমাদের জীবনের সবচেয়ে বড় জনস্বাস্থ্য বিষয়ক সঙ্কটে রয়েছি”।

সংক্রামক রোগ বিষয়ক যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্টনিফাউচি নতুন বছরের এই সময়টায় মানুষজনকে ভীড়ের পরিস্থিতি এড়িয়ে তার পরিবর্তে টিকাপ্রাপ্ত পরিবার ও বন্ধুদের ছোট ছোট দলে সাক্ষাতের উপদেশ দিয়েছেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর উপাত্ত অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রে বৃহস্পতিবার কোভিডের ৫,৮০,০০০ নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে, যা বুধবারের মোট ৪,৮৮,০০০ নতুন শনাক্তের সংখ্যাকে ছাড়িয়ে গিয়েছে।

ওমিক্রন প্রাদুর্ভাবের ফলে যুক্তরাষ্ট্রের এয়ারলাইনগুলোকে হাজার হাজার ফ্লাইট বাতিল করতে হয়েছে যার ফলে অনেক যাত্রীই আটকা পড়েছেন। একই সাথে, কয়েকটি জাহাজে করোনা প্রাদুর্ভাবের ফলে সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এ্যান্ড প্রিভেনশন সমুদ্রভ্রমণ এড়াতে উপদেশ করে গুরুতর সতর্ক-বার্তাজারি করেছে।

ওমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় ইসরাইল বৃহস্পতিবার দূর্বল রোগ প্রতিরোধ সম্পন্ন ব্যক্তি, বয়স্ক ব্যক্তি ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য কোভিডের টিকার চতুর্থ ডোজ অনুমোদন করে।

ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের মহাপরিচালক অধ্যাপক নাখমান অ্যাশবলেন যে দেশটি “সতর্ক ও দায়িত্বশীল আচরণ করছে”।

অপরদিকে, প্রথম ওমিক্রন আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়া দেশ দক্ষিণ আফ্রিকা রাত্রিকালীন কারফিউ তুলে নিয়েছে।বৃহস্পতিবারের একটি বিশেষ মন্ত্রীপরিষদ সভার বিবৃতিতে জানানো হয় যে সকল সূচকই নির্দেশ করছে যে দক্ষিণ আফ্রিকা “সম্ভবতঃ জাতীয় পর্যায়ে মহামারীর চতুর্থ ঢেউয়ের সর্বোচ্চ অবস্থানঅতিক্রম করেছে”।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, “ভাইরাসটির ওমিক্রন প্রকরণটি ব্যাপক সংক্রামক হলেও পূর্বের সংক্রমণগুলোর তুলনায় হাসপাতালে রোগী ভর্তির হার কম হয়েছে”।

XS
SM
MD
LG