অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পাকিস্তানের ১৮শ’ কোটি রুপি দুর্নীতিতে ৭ বাংলাদেশী


Pakistan map

ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তানের ১৮ কোটি ৫০ লাখ ডলার দুর্নীতির দায়ে ৭ বাংলাদেশীসহ ওই ব্যাংকের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে পাকিস্তানের দুর্নীতি বিরোধী আদালত। বাংলাদেশে এ ব্যাংকের বিভিন্ন শাখায় এই দুর্নীতি হয়েছে। অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছেন। অভিযুক্ত সাত বাংলাদেশীর মধ্যে রয়েছেন সলিমুল্লাহ, প্রদীপ, কাজী নিজামুদ্দিন। বাকিদের নাম জানা যায়নি। ওদিকে এ মামলায় পলাতক বাংলাদেশীদের গ্রেপ্তারে সার্কভুক্ত দেশগুলোর কাছে চিঠি লিখেছে পাকিস্তানের জাতীয় জবাবদিহিতা বিষয়ক ব্যুারো (এনএবি)। অন্য অভিযুক্তরাও পলাতক রয়েছে। এতে বলা হয়, পাকিস্তানের ন্যাশনাল ব্যাংকের সাবেক প্রেসিডেন্ট আলী রাজা ও এই ব্যাংকের বাংলাদেশ শাখার শীর্ষস্থানীয় কিছু কর্মকর্তা দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত। তারা ১৮ কোটি ৫০ লাখ ডলার দুর্নীতিতে জড়িত। এ জন্য গত মঙ্গলবার পাকিস্তানের দুর্নীতি বিরোধী আদালত এসব অভিযুক্তের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে। এদিন আলী রাজা ও ৭ বাংলাদেশীসহ মোট ১৬ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের শুনানি অনুষ্ঠিত হয় আদালতে। এনএবি’র তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) এ বিষয়ে তদন্ত শেষে তার রিপোর্ট জমা দিয়েছেন আদালতে। এনবিপি’র সাবেক প্রেসিডেন্ট আলী রাজা ও সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট জুবায়ের আহমেদ এ মামলায় জামিনে রয়েছেন। আদালত এ মামলায় জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে মামলার পরবর্তী শুনানীর দিন ধার্য করেন ২৯শে আগস্ট।
ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট।

XS
SM
MD
LG