অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র ও চীনকে উত্তেজনা কমানোর আহবান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী


ফাইল ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কথা বলছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। জুন ০৪, ২০২১।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বৃহস্পতিবার বলেছেন যে, তথাকথিত স্নায়ুযুদ্ধের মতো “ব্লক” এর পক্ষে যাবার পরিবর্তে তার দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা কমাতে সাহায্য করতে চায়।

ইসলামাবাদে একটি আঞ্চলিক নিরাপত্তা সেমিনারে ইমরান খান তার মূল বক্তৃতায় সতর্ক করে দিয়েছেন যে, দুটি বিশ্বশক্তির মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা "(আরেকটি) স্নায়ুযুদ্ধের দিকে অগ্রসর হচ্ছে এবং নতুন ব্লক (আবার) গঠিত হচ্ছে”।

তিনি বলেন, ইসলামাবাদ আরেকটি স্নায়ুযুদ্ধের ফাঁদে পড়তে চায় না, যেভাবে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন জোটে গিয়ে তার দেশ ফাঁদে পড়েছিল।

তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, "এই ব্লক গঠন বন্ধ করার জন্য পাকিস্তানকে অবশ্যই যথাসাধ্য চেষ্টা করতে হবে। আমাদের অবশ্যই কোন ব্লকের অংশ হওয়া উচিৎ নয়"।

পাকিস্তান ১৯৮০ দশকে আফগানিস্তানে সোভিয়েত দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়নে পরিচালিত আফগান সশস্ত্র প্রতিরোধের ঘাঁটি হিসেবে কাজ করেছে। ঐ আফগান সশস্ত্র প্রতিরোধ ইসলামিক জিহাদ নামে পরিচিত ছিল।

ইমরান খানের এসব বক্তব্যের একদিন আগে তার সরকার জানিয়েছে যে, পাকিস্তান যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সামিট ফর ডেমোক্রেসিতে যোগ দেবে না। দুই দিনের ঐ ভার্চুয়াল শীর্ষ বৈঠক বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছে। ওয়াশিংটন ঐ শীর্ষ বৈঠকে তাইওয়ানকে আমন্ত্রণ জানালেও, চীনকে আমন্ত্রণ জানায়নি।

XS
SM
MD
LG