অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গাদের বিতাড়ণ প্রসঙ্গে আইসিসির জিজ্ঞাসা, ব্যারিস্টার জোতির্ময় বড়ুয়ার বিশ্লেষণ


A picture taken on Nov. 23, 2015 shows the new building of the International Criminal Court (ICC) in The Hague, The Netherlands.

মিয়ানমারের রাখাইন থেকে গত বছরের আগস্টের পর ৭ লক্ষাধিক রোহিঙ্গাকে গণহারে বিতাড়ণের ব্যাপারে তদন্তের লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত বা আইসিসি ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে মিয়ানমার সরকারের পর্যবেক্ষণ জানতে চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছিল। মিয়ানমার আন্তর্জাতিক আদালতে কোনো পর্যবেক্ষণ দেবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ঢাকা থেকে বিস্তারিত জানিয়েছেন আমীর খসরু।

please wait

No media source currently available

0:00 0:04:50 0:00

মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অফিসের মহাপরিচালক য থয়ে সংবাদ মাধ্যমকে ওই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে বলেন, রোম সনদ-যার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত কার্যক্রম চালায়-মিয়ানমার তাতে স্বাক্ষর করেনি। কাজেই আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের এখতিয়ার নেই বলে মিয়ানমারের ওই কর্মকর্তা জানান। এদিকে, ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে বাংলাদেশ সরকার এবং বেসরকারীভাবে বাংলাদেশের ২৬ জন বিশিষ্ট নাগরিক গত মাসে আইসিসির কাছে পর্যবেক্ষণ জমা দিয়েছে।
২৬ জন বিশিষ্ট নাগরিকের একজন এবং বাংলাদেশের সুপ্রীমকোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার জোতির্ময় বড়ুয়া ভয়েস অব আমেরিকার সাথে আলাপকালে, মিয়ানমার পর্যবেক্ষণ না দিলেও আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত কি পদ্ধতিতে কার্যক্রম এগিয়ে নিতে পারে, সে সম্পর্কে বলেছেন।

XS
SM
MD
LG