অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

গণমাধ্যমের স্বাধীনতার সমর্থক সাংবাদিকদের আটক করেছে রাশিয়ার পুলিশ


“সাংবাদিকতা অপরাধ নয়” প্ল্যাকার্ড বহন করা, একজন অ্যাক্টিভিস্টকে আটক করে নিয়ে যাচ্ছে রাশিয়ান পুলিশ

রাশিয়ার একটি শীর্ষ স্থানীয় টিভি চ্যানেলকে "বিদেশী এজেন্ট" হিসেবে চিহ্নিত করার কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করার সময়ে , শনিবার বেশ কয়েকজন সাংবাদিককে আটক করেছে সেখানকার পুলিশ।

সাংবাদিকরা মস্কোর লুবায়ঙ্কা স্কোয়ারে দেশটির শীর্ষ অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংস্থা এফএসবি -এর প্রধান সদর দফতরের বাইরে জড়ো হয়ে মিছিল করছিল।

শুক্রবার রাশিয়ার বিচার মন্ত্রক "বিদেশী এজেন্টদের" একটি তালিকা প্রকাশ করে। ওই তালিকায় দোযহদ (রেইন) টিভি চ্যানেল এবং অনলাইন অনুসন্ধানী আউটলেট ভাজনে ইস্তোরি (গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ)কে অন্তর্ভুক্ত করার প্রতিবাদে, সাংবাদিকরা, "সাংবাদিকতা অপরাধ নয়" এবং "আপনি সত্যকে ভয় পাচ্ছেন" এ রকম প্ল্যাকার্ড বহন করে প্রতিবাদ জানায়।

পিকেটিং করার নিয়ম আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইন লংঘনের অভিযোগে মামলা দায়ের করে, আদালতের শুনানিতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করা হয়। রাশিয়ায় পিকেটিং একটি প্রশাসনিক অপরাধ, যার জন্য ২৭০ ডলার পর্যন্ত জরিমানার বিধান রয়েছে।

শনিবার পিকেটিং করা দোযহদ সাংবাদিক ফরিদা রুস্তমোভা বলেন, “আমি টিভি চ্যানেল দোযহদকে 'বিদেশী এজেন্ট' হিসেবে চিহ্নিত করার বিপক্ষে," "আমি স্বাধীনভাবে কাজ করতে চাই এবং রাশিয়ায় বসবাস করতে চাই। আমি একজন স্বাধীন সাংবাদিক হওয়ার সুযোগ পেতে চাই। আমি চাই না আমার সহকর্মীদের গ্রেপ্তার করা হোক, তল্লাশি করা হোক এবং 'জনগণের শত্রু' বা 'এজেন্ট' হিসেবে চিহ্নিত করা হোক”।

ভাজনিয়ে ইস্তোরি’তে কর্মরত ইউলিয়া ক্রাসনিকোভা নামের এক সাংবাদিক কর্তৃপক্ষের ওই পদক্ষেপকে অসাংবিধানিক বলে নিন্দা করেছেন।

ক্রাসনিকোভা বলেন, “অন্য সরকারপন্থী মিডিয়া যেসব প্রতিবেদন লিখছে, সেসব আমরা লিখতে চাই না। তার অর্থ এই নয় যে, আমরা কিছু লঙ্ঘন করি এবং আমরা 'বিদেশী এজেন্ট'”।তিনি বলেন , “আমি এখানে এর প্রতিবাদ করতে এবং আমার সহকর্মীদের সমর্থন করতে এসেছি”।

রাশিয়ার কর্তৃপক্ষ ১৯শে সেপ্টেম্বরের সংসদীয় নির্বাচনের আগে বিরোধী দল এবং স্বাধীন গণমাধ্যমের ওপর চাপ বাড়িয়েছে। এটিকে রাশিয়ার ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে পুতিনকে তার শাসন পাকাপোক্ত করার প্রচেষ্টার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

XS
SM
MD
LG