অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ায় আক্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দে করেছে রাশিয়া


রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র জোটের বিমান আক্রমণের নিন্দে করে বলেছেন যে এটি হচ্ছে আন্তর্জাতিক আইন লংঘন। ক্রেমলিনের ওয়েব সাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে পুতিন জোট বাহিনীর এই বিমান অভিযানকে একটি সার্বভৌম রাষ্ট্রের ওপর আগ্রাসন বলে অভিহিত করেছেন এবং যুদ্ধ বিধ্বস্ত সিরিয়ায় মানবিক দূর্ভোগ বাড়িয়ে তোলার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করেছেন।

পুতিন এই আক্রমণ নিয়ে আলোচনার জন্য জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠক আহ্বান করেন। পুতিন বলেন যে সিরিয়াকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতির বর্তমান অবনতি , গোটা আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ওপর মারাত্মক প্রতিকুল প্রভাব ফেলবে। পুতিন দাবি করেন যে রাশিয়ার নিজস্ব সামরিক বিশেষজ্ঞরা দোমায় কথিত রাসায়নিক আক্রমণের স্থানে ভ্রমণ করে কোন ক্লোরিন কিংবা অন্য কোন বিষাক্ত গ্যাসরে চিহ্নমাত্র পায়নি। ক্রেমলিন সরকার বলছে যে বাদবাকী নিষিদ্ধ অস্ত্র এখন হয় সন্ত্রাসবাদীদের হাতে রয়েছে নইলে পশ্চিম সমর্থিত বিদ্রোহী গোষ্ঠিগুলোর হাতে রয়েছে যারা আসাদ সরকারকে খর্ব করার চেষ্টা করছে। তবে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রক জানিয়েছে যে যুক্তরাষ্ট্রের নের্তৃত্বাধীন এই আক্রমণ , সিরিয়ার বিভিন্ন শহরে রুশ ঘাঁটিগুলো এড়িয়ে গেছে।

অবশ্য পরস্পর বিরোধী বাগাগম্বর সত্বেও , পর্দার অন্তরালে কুটনৈতিক প্রচেষ্টার ও আভাষ পাওয়া গেছে। মস্কোতে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস থেকে প্রচারিত একটি ভিডিওতে , রাষ্ট্রদূত জন হান্টসম্যান বলেছেন যে রুশ কিংবা কোন অসামরিক লোকের হতাহত হবার বিপদ কমিয়ে আনার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করেছে। হান্টসম্যান বলেন যে এটি বৃহৎ শক্তিগুলোর সংঘাত নয় , এটি একটি নীতির ওপর ভিত্তি করে করা হয়েছে যে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়।

XS
SM
MD
LG