অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মোগাদিসুতে নিরাপত্তা যানবহরকে লক্ষ্য করে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৮ জন নিহত


বিস্ফোরণের পরে ক্ষতিগ্রস্ত স্কুল এবং বাস।

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে একটি স্কুলের কাছে একটি নিরাপত্তা যানবহরকে লক্ষ্য করে একটি আত্মঘাতী গাড়ি বোমা হামলায় বৃহস্পতিবার অন্তত আটজন নিহত এবং ১৭ জন আহত হয়েছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভিওএ-এর সোমালি সার্ভিসকে একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন, “বিশাল ওই বিস্ফোরণে কান স্তব্ধ হয়ে যায় এবং আকাশ ধোঁয়ার আস্তরণে ঢেকে যায়। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক সবাই দৌড়ে পালাতে বাধ্য হয় এবং দেয়ালের পেছনে গিয়ে আশ্রয় নেয়।আমি বাইরে এসে কমপক্ষে ৮ জনের মৃতদেহ এবং ১০ জনেরও বেশি মানুষকে আহত অবস্থায় দেখতে পাই”।

একটি নিরাপত্তা যানবহরকে লক্ষ্য করে ওই আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানো হয়েছে বলে, মোগাদিসু পুলিশের মুখপাত্র আবদিফাতাহ আদেন হাসান জানিয়েছেন। হাসান সাংবাদিকদের বলেন, “একজন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী একটি বিস্ফোরক-বোঝাই এসইউভি, জাতিসংঘের নিরাপত্তা প্রদানকারী একটি যানবহরের পাশাপাশি গাড়ি চালিয়ে বিস্ফোরণটি ঘটায়। পুলিশ আটজনের মৃতদেহ নিশ্চিত করেছে, এবং ১৭ জন আহত হয়েছে”।

তবে বিস্ফোরণে নিহত বা আহতদের মধ্যে জাতিসংঘের কোন কর্মী বা বিদেশী নাগরিক ছিল কিনা, তা তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট জানা যায়নি এবং এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য জাতিসংঘের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

মোগাদিশুর ব্যস্ত কৌশলগত কেএম ৪ জংশন এবং রাজধানীর হোদান জেলার তারাবুঙ্কা এলাকার মধ্যবর্তী রাস্তায় বিস্ফোরণটি ঘটে।

একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীর মতে, বিস্ফোরণে ছোট ব্যবসা, একটি রেস্তোরাঁ এবং কাছাকাছি মুকাসার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কিছু অংশ ধ্বংস হয়ে গেছে।

ইউসুফ হুসেন আবদি নামের স্কুলের একজন প্রশাসক, ভিওএ সোমালিকে জানিয়েছেন, “এক হাজারের বেশি শিক্ষার্থী বিস্ফোরণের সময় ক্লাসে ছিল। ১৩ জন ছাত্র, একজন শিক্ষক এবং স্কুলের তিনজন গাড়ী চালকসহ মোট ১৭ জন এতে আহত হয়েছে”।

তিনি আরও বলেন, “বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থলের চারপাশে গোলাগুলি শুরু হয়। স্কুলে আতঙ্ক ও ধাক্কাধাক্কির মধ্যে আমাদের শিক্ষার্থীরা তাদের জীবন নিয়ে দৌড়ে পালাতে বাধ্য হয়”।

ইসলামপন্থী গোষ্ঠীর এক মুখপাত্র আন্দালুস রেডিওসহ আল-শাবাবপন্থী মিডিয়ায় প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। পশ্চিমা কর্মকর্তাদের বহন করা আফ্রিকান ইউনিয়নের একটি যানবহর তাদের লক্ষ্যবস্তু ছিল বলে ওই মুখপাত্র জানিয়েছে।

XS
SM
MD
LG