অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

 উত্তর কোরিয়ার হুমকি সত্ত্বেও সম্পর্ক ভালো করতে চায় দক্ষিণ কোরিয়া


সোওলে যুক্তরাষ্ট্র উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়েন্ডি শেরম্যান ও দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তাদের মধ্যে বৈঠক
ফাইল ছবি, ২৩শে জুলাই, ২০২১-এপি
সোওলে যুক্তরাষ্ট্র উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়েন্ডি শেরম্যান ও দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তাদের মধ্যে বৈঠক ফাইল ছবি, ২৩শে জুলাই, ২০২১-এপি

দক্ষিণ কোরিয়া সোমবার জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে গ্রীস্মকালীন সামরিক মহড়ায় যোগ দিলে প্রতিদ্বন্দ্বী উত্তর কোরিয়ার তরফে বিদ্বেষ বৃদ্ধির হুমকি থাকা সত্ত্বেও, তারা দুটি দেশের সম্পর্ক উন্নয়ন ও আলোচনা চালানোর প্রতি জোর দিয়ে যাবেI

রবিবার রাতে, উত্তর কোরীয় নেতা'র প্রভাবশালী বোন হুশিয়ার করে দেন যে, এসব সামরিক মহড়া দুটি দেশের মিলিত আস্থা পুনরায় প্রতিষ্ঠার প্রয়াস গুরুতরভাবে ব্যাহত করবে এবং এমাসের নির্ধারিত প্রশিক্ষণ মহড়া এগিয়ে গেলে, উন্নত সম্পর্ক গড়ার সম্ভাবনা বিলীন হতে পারেI তাঁর এই বিবৃতি, উত্তর কোরিয়ার দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে বহুদিন ধরে বন্ধ থাকা যোগাযোগ পুনরায় খুলে দেয়ার সাম্প্রতিক সিদ্ধান্তের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছেI
.
দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা দপ্তর সোমবার জানায়, মহড়ার সঠিক সময়, প্রকৃত আকৃতি ও আনুষাঙ্গিক খুঁটিনাটি এখনো নির্ধারিত হয় নি এবং এসব বিষয়গুলি অবশ্যই দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষ নির্ধারণ করবেনI দক্ষিণ কোরিয়া মুখপাত্র. বু সিউং চান তাঁর আগেকার বিবৃতি পুনরাবৃত্তি করে বলেন, দুটি দেশ কতিপয় বিষয় পরীক্ষা করে দেখছে, যেমন, কোভিড পরিস্থিতি, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অভিলাষ প্রশমিত করতে কূটনৈতিক উদ্যোগ এবং দক্ষিণ কোরিয়া-যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক প্রস্তুতিI

উত্তর কোরিয়া দক্ষিণ ও যুক্তরাষ্ট্রের নিয়মিত সামরিক মহড়াকে আগ্রাসী মহড়া বলে গণ্য করে এবং তাদের নিজস্ব অস্ত্র পরীক্ষার মাধ্যমে তাঁর জবাব দিয়ে থাকেI

(এপি)

XS
SM
MD
LG