অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

তাইওয়ানের একটি ভবনে রাতভর অগ্নিকান্ডে ৪৬ জনের প্রাণহানি 


তাইওয়ানের EBC'র ভিডিও থেকে নেয়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে কাওশিয়ং শহরের একটি ভবনে লাগা আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন দমকল কর্মীরা- EBC থেকে এপি

তাইওয়ানের দক্ষিণঞ্চলের একটি প্রধান শহরের এক ভবনের সারা রাত ধরে অগ্নিকান্ডে ৪৬ জন প্রাণ হারিয়েছেন এবং আরও ৪১ জন আহত হয়েছেন বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

কাওশিয়ং শহরের ১৩-তলা একটি ভবনের নীচের তলাগুলোতে আগুনের শিখা এবং ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়লে রাস্তা থেকে এবং বিমানের মাধ্যমে দমকল বাহিনী আগুন নেভানোর চেষ্টা করে । দমকল বিভাগের এক বিবৃতিতে ঐ অগ্নিকান্ডকে “প্রচন্ড ভয়াবহ” বলে বর্ণনা করা হয় এবং বলা হয় ভবনটির বহু তলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

উদ্ধার কর্মীরা দিনের বেলায় যুগপত্ ঐ বানিজ্যিক ও আবাসিক ভবনটির সন্ধান কাজ চালানোর সময়ে মৃতের সংখ্যা ক্রমশই বৃদ্ধি পায়। বিকেলের দিকে কর্তৃপক্ষ জানায় ৩২ টি মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। যে ৫৫ জনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাদের মধ্যে আরও ১৪ জনের বেঁচে থাকার কোন লক্ষণ দেখা যায়নি। তাইওয়ানে সরকারি ভাবে মৃত্যু একমাত্র হাসপাতালেই নিশ্চিত করা হয়। তাইওয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সির মতে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন ভবনটির বয়স এবং অনেক জায়গায় বিক্ষিপ্ত ধ্বংসাবশেষের কারণে, প্রবেশের অনেক পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সন্ধান ও উদ্ধার প্রচেষ্টা ব্যাহত হয়।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে ৪০ বছরের পুরোনো ঐ ভবনে মাত্র ১৪০ বর্গফুটের ছোট্ট অ্যাপার্টমেন্টের বহু বাশিন্দাই বয়স্ক এবং তাঁরা একাই বাস করেন। সেখানকার একটি প্রধান সংবাদপত্র দ্য ইউনাইটেড ডেইলি নিউজ বলছে গত মাসে সেখানে অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র স্থাপন করা হয় , তবে প্রতি তিন তলার জন্য একটি করে কারণ সেখানকার বাশিন্দারা এর বেশির ব্যয় বহন করতে অপারগ ছিলেন।

XS
SM
MD
LG