অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের শীর্ষ আদালত সুপ্রিম কোর্টের বক্তব্য রাখেন প্রবীন আইনজীবী তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কপিল সিব্বল


India

মুসলমান সমাজের তিন তালাকের সমর্থনে মুখ খুলে অযোধ্যায় রামের জন্মের প্রসঙ্গ তুলল অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সনাল ল বোর্ড। দেশের শীর্ষ আদালত সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চে বোর্ডের হয়ে সওয়াল করতে উঠে নামী দেশের প্রবীন আইনজীবী তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কপিল সিব্বল আজ মঙ্গলবার বোঝাতে চান, হিন্দুরা যেমন অযোধ্যায় রামের জন্ম হয়েছিল বলে বিশ্বাস করেন, তেমনই মুসলিমরাও একই ভাবে তিন তালাক মানেন। হিন্দুদের বিশ্বাস নিয়ে প্রশ্ন তোলা না গেলে মুসলিমদের তিন তালাকে আস্থা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে পারে না।
তিনি বলেন ছশো সাইত্রিশসাল থেকে তিন তালাক চালু রয়েছে। আমরা বলার কে, যে এটা অ-ইসলামিয়, অসাংবিধানিক! গত চোদ্দোশো বছর ধরে তিন তালাক প্রথা মানছেন মুসলিমরা। এটা বিশ্বাসের ব্যাপার। সুতরাং এর মধ্যে সাংবিধানিক নৈতিকতা, সমতার প্রশ্নই ওঠে না। দেশের ইউনাইটেড প্রোগ্রেসিভ অ্যালাইন্স ইউ পি এ জমানার প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কপিল সিবাল বলেন, আমি যদি এটা বিশ্বাস করি যে, রাম অযোধ্যায় জন্মেছিলেন, তাহলে সেটা নিছকই বিশ্বাসের ব্যাপার। তার মধ্যে সাংবিধানিক বৈধতা, যৌক্তিকতার প্রশ্নই নেই।প্রধান বিচারপতি জে এস খেহরের নেতৃত্বাধীন সংবিধান বেঞ্চে কপিল সিবাল উল্লেখ করেন, তিন তালাকের উৎস খুঁজে পাওয়া যাবে হাদিসে, পয়গম্বর মহম্মদের আমলের পর থেকে তার সূচনা। তিন তালাক, নিকাহ হালালা, বহুবিবাহ প্রথা চ্যালেঞ্জ করে পেশ হওয়া একগুচ্ছ পিটিশনের সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চে শুনানির চতুর্থ দিন ছিল আজ। প্রসংগত বলা যেতে পারে গতকালই কেন্দ্রের তরফে বেঞ্চকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, তিন তালাক সহ সব ধরনের ডিভোর্স আদালতে বাতিল হয়ে গেলে মুসলিমদের বিয়ে, বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ন্ত্রণে নতুন আইন আনা হবে।

XS
SM
MD
LG