অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কাবুলে বিস্ফোরণের পর আইসিসের একটি আস্তানা ধ্বংস করা হয়েছে-তালিবান


ফাইল ছবি, আইসিস জঙ্গিরা আফগানিস্তানের কুনার প্রদেশে আত্মসমর্পণ করছেন, সৌজন্যে ইমেজ

তালিবান আন্দোলনের একজন মুখপাত্র জানান, রবিবার রাজধানীর একটি মসজিদের বাইরে হামলায় অসামরিক লোকজনের মৃত্যু ও আহত হওয়ার পর, তালিবান সরকারি বাহিনী কাবুলের উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত ইসলামিক স্টেটের একটি আস্তানা ধ্বংস করে দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র তাদের সেনাবাহিনী আগস্টের শেষভাগে প্রত্যাহারের পর রাজধানীতে রবিবারের দৃশ্যত সবচাইতে মারণাত্মক এই হামলার সঙ্গে তাদের অভিযান সরাসরি সম্পৃক্ত কিনা,তা সত্যায়ন করা যায় নিI

আইসিস-খোরাসান নামে পরিচিত ইসলামিক স্টেট-এর স্থানীয় অঙ্গ শাখা ইতিমধ্যেই কতগুলি তালিবান লক্ষ্যবস্তুর ওপর হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে এবং তালিবানের আন্দোলনের ব্যাপারে এখনো তারা অমীমাংসিত। তালিবান গত অগাস্ট মাসে কাবুলের পশ্চিম সমর্থিত সরকারের বিরুদ্ধে তড়িৎ বিজয় হাসিল করেI

তালিবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ জানান, তালিবানের বিশেষ একটি বাহিনী রবিবার রাজধানীর উত্তরাঞ্চলে কাবুলের ১৭তম ডিস্ট্রিক্টে আইসিস জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালায়I

টুইটার বার্তায় সোমবার তিনি জানান, আইসিসের ঐ আস্তানা সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়েছে এবং আমাদের সফল ও চূড়ান্ত অভিযান চালিয়ে আইসিস জঙ্গিদের হত্যা করা হয়েছেI

এর আগে স্থানীয় মাধ্যমে ওই এলাকায় প্রবল সংঘাতের কথা জানানো হয় এবং বাসিন্দাদের যোগাযোগ করা হলে তারা রাত্রিকালীন বিস্ফোরণ ও বন্দুকের গুলির আওয়াজ শুনেছেন বলে জানানI

তালিবান গোষ্ঠী, যারা কাবুলের উত্তরাঞ্চলীয় পাঞ্জশির অঞ্চলের একজন বিরোধী নেতা আহমদ মাসুদের অনুগত অবশিষ্ট দলের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছে, জানায় যে তারা দেশের প্রায় পুরো এলাকার নিয়ন্ত্রণ লাভ করেছেI

ইসলামিক স্টেট দল পূর্বাঞ্চলীয় শহর জালালাবাদে কতগুলি বোমা হামলা ও আত্মঘাতী হামলা চালানোর দায়িত্ব স্বীকার করে। এছাড়া কাবুল বিমানবন্দরে যে হামলায় ১৩জন যুক্তরাষ্ট্রের সেনা এবং বহু আফগান জনগণের মৃত্যু হয়েছিল,তার দায়িত্ব স্বীকার করেI এসব আফগান জনগণ বিমানের ফ্লাইটে আসন পেতে মরিয়া হয়ে কাবুল বিমানবন্দরের প্রবেশ পথে জড়ো হয়েছিলেনI

রয়টার্স

XS
SM
MD
LG