অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আমেরিকায় গুলির ঘটনার শিকার শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের নিয়ে সমাবেশ করবেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প


আগ্নেয়াস্ত্রকে অনেক বেশিরকম প্রাণঘাতী করে তুলতে পারে এমন একটি যন্ত্রাংশকে নিষিদ্ধ করা এবং আগ্নেয়াস্ত্র ক্রেতাদের পরিচিতি সনাক্তের ব্যাপারে আরো বেশি কড়াকড়ি আরোপের সুপারিশ জানাবার পর প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প আজ বুধবার হোয়াইট হাউসে, ছাত্র–অভিভাবক ও শিক্ষকদের নিয়ে, যাঁরা কিনা আমেরিকায় ব্যাপক গুলিবর্ষন ঘটনার শিকার হয়েছেন, সেই তাঁদেরকে নিয়ে এক শ্রূতি সমাবেশের আয়োজন করছেন।

এ সমাবেশে শরিকদের মধ্যে থাকছে ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ডের মার্জারী স্টৌনম্যান ডাগলাস হাই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী, যে স্কুলেরই প্রাক্তন এক ছাত্র এই গেলো বুধবারেই ১৭ ব্যক্তির প্রাণ বিনাশ ঘটিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ট্রাম্প ঐ ঘটনাকে বেধড়ক শয়তানী নিধণযজ্ঞ বলে অভিহিত করেন। ফ্লোরিডার ঐ হত্যাকান্ডের পর এই প্রথম প্রেসিডেন্ট বিস্তৃত পরিসরে কোন মন্তব্য করলেন, স্কুলের নিরাপত্তা বিধান তাঁর প্রশাসনের শীর্ষ অগ্রাধিকার বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আসছে সপ্তাহে বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্যে তিনি রাজ্য গভর্ণরদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। প্রেসিডেন্ট প্রস্তাবিত এক প্রস্থ নিয়মবিধির উল্লেখ করেন। আগ্নেয়াস্ত্রকে অনেক বেশিরকম প্রাণঘাতী করে তুলতে পারে এমন একটি যন্ত্রাংশকে নিষিদ্ধ করার বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন তিনি।

গত অক্টোবরে নেভাডার লস ভেগাসে এই যন্ত্রাংশের ব্যবহারের সুযোগ নিয়ে ৫৮ জনকে হত্যা করা হয়েছিল। যে ঘটনায় আহতই হয়েছিল অন্যান্য ৮৫১ জন।

সর্ব সাম্প্রতিক ঐ পার্কল্যান্ড স্কুলের গুলিবর্ষন ঘটনার পর ট্রাম্প প্রশাসন ও আইন প্রণেতাদেরকে বিরুপ সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে এই বলে যে আগ্নেয়াস্ত্রের কথা না বলে মানসিক ভারসাম্যহীনতার বিষয়টির ওপরই বেশি ফলাও করে কথাবার্তা বলা হচ্ছে। প্রাণে রক্ষা পাওয়া কিছু শিক্ষার্থীর পক্ষ থেকেও এ বিরুপ সমালোচনার অবতারনা হচ্ছে।

XS
SM
MD
LG