অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্টের সমর্থনে সমাবেশ


তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট কাইস সাঈদের সমর্থকরা তার ক্ষমতা দখল এবং সংসদ স্থগিত করার সমর্থনে রাজধানী তিউনিসে সমাবেশ করে। ৩ অক্টোবর, ২০২১।

তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট কাইস সাঈদের হাজার হাজার সমর্থক রোববার দেশটির রাজধানী তিউনিসে সমাবেশ করেছে। প্রেসিডেন্ট সংসদ ভেঙে দিয়ে রাজনৈতিক ব্যবস্থা পরিবর্তনের যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তারা তার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। যদিও সাইদের সমালোচকরা একে অভ্যুত্থান হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

সাঈদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তিউনিসের কেন্দ্রস্থলে ঠিক একই স্থানে আগের দুই সপ্তাহান্তে সমাবেশ ডাকা হয়েছিল। এটি সেই সমাবেশের চেয়ে অনেক বড় হবে বলে ওনুমান করা হচ্ছে।

বিক্ষোভকারীরা তিউনিসিয়ার পতাকা উত্তোলন করে এবং সংসদে সবচেয়ে বড় ইসলামপন্থী দল এবং সাঈদের প্রধান প্রতিপক্ষ এন্নাহদা’র বিরুদ্ধে নানারকম স্লোগান সম্বলিত প্ল্যাকার্ড বহন করে।

প্রেসিডেন্ট সাঈদ গত জুলাই মাসে সংসদ ভেঙ্গে দেন, নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত করেন এবং ব্যাপক নির্বাহী ক্ষমতা গ্রহণ ক’রে তিউনিসিয়াকে এক সাংবিধানিক সংকটে ফেলে দেন।

গত মাসে তিনি সংবিধান থেকে অনেক কিছু মুছে ফেলেন, যাতে করে তিনি ডিক্রি দিয়ে আইন প্রণয়ন করতে পারেন। এর ফলে তিউনিসিয়ার ২০১১ সালের বিপ্লব, যা কিনা মুসলিম বিশ্বে "আরব বসন্তের সূত্রপাত ঘটিয়েছিল, তার ফলে সে দেশে গণতন্ত্রের যে উন্নতি হয়েছিল, তা নিয়ে এখন সন্দেহ তৈরি হয়েছে।

যদিও জনমত জরিপে সাঈদের পদক্ষেপের ব্যাপক সমর্থন রয়েছে, তারপরও সংকট থেকে উত্তরণে একটি সময়রেখা ঘোষণা করতে দীর্ঘ বিলম্বের ফলে তার বিরোধিতাও জোরদার হচ্ছে।

বেশিরভাগ রাজনৈতিক মহল এবং শক্তিশালী শ্রমিক ইউনিয়ন ইউজিটিটি বলছে, তিনি যদি সংবিধান সংশোধন করার পরিকল্পনা করেন, তবে তাকে আরও ব্যাপকভাবে পরামর্শ শুরু করতে হবে, যেমনটি তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন।

তিউনিসিয়ার পুলিশ রোববার সাঈদের বিশিষ্ট সমালোচক হিসেবে পরিচিত একজন সংসদ সদস্য এবং একজন টেলিভিশন উপস্থাপককে গ্রেপ্তার করেছে। তবে এ নিয়ে পুলিশ বা সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তাত্ক্ষণিক কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

XS
SM
MD
LG