অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মহামারীর কারণে দক্ষিণ এশিয়ার ৪০ কোটির বেশি শিশুর লেখাপড়া ক্ষতিগ্রস্তঃ ইউনিসেফের প্রতিবেদন


ভারতের বেঙ্গালুরুতে স্কুলে যাবার জন্য শিক্ষার্থীরা মাস্ক পরে একটি বাস স্টপে অপেক্ষা করছে। নভেম্বর ৩০, ২০২১।

ইউনিসেফের নতুন এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, দক্ষিণ এশিয়ার কিছু দেশে কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে স্কুলগুলো দ্বিতীয় বছরের মত বন্ধ থাকায় ৪০ কোটির বেশি শিশুর লেখাপড়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জাতিসংঘের সংস্থাটি, ঐ অঞ্চলের দেশগুলোকে স্কুলগুলো আবার সম্পূর্ণরূপে খুলে দেবার আহবান জানিয়েছে। সংস্থাটি সতর্ক করে দিয়েছে যে, হারিয়ে যাওয়া শিক্ষার পরিণতিগুলো ব্যাপক এবং এর প্রভাব ঐ অঞ্চলে দীর্ঘস্থায়ী হবে, কারণ সেখানে দূর শিক্ষার সুবিধা অনেক কম।

দক্ষিণ এশিয়ায় ইউনিসেফের আঞ্চলিক পরিচালক জর্জ লারিয়া-আদজেই বলেন, "সাম্প্রতিক দশকগুলোতে শিশু অধিকারের ক্ষেত্রে আমাদের অঞ্চলে যে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জিত হয়েছে, তা এখন ঝুঁকির মুখে"।

তিনি বলেন, "আমরা যদি পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হই, তাহলে কোভিড-১৯ মহামারীর সবচেয়ে খারাপ প্রভাব আগামী কয়েক দশক ধরে অনুভূত হবে"।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের অনেক অংশের তুলনায় দক্ষিণ এশিয়ায় স্কুলগুলো বেশি সময় ধরে বন্ধ রাখা হয়েছে। ২০২০ সালের মার্চ থেকে চলতি বছরের আগস্ট পর্যন্ত স্কুলগুলো গড়ে প্রায় ৩২ সপ্তাহ সম্পূর্ণ বন্ধ ছিল।

বাংলাদেশের স্কুলগুলো সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অর্থাৎ ১৮ মাস বন্ধ ছিল। যা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে স্কুল বন্ধ থাকার ঘটনার অন্যতম। ভারত ও নেপালের মত দেশগুলোতে, স্কুলগুলো কেবলমাত্র আংশিকভাবে খুলেছে।

XS
SM
MD
LG