অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হাইতির প্রেসিডেন্টকে হত্যার ঘটনায় সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে যুক্তরাষ্ট্র 


হাইতির পোর্ট-অ-প্রিন্সের একটি রাস্তার উপর টাওয়ারে হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল ময়েসকে চিত্রিত করা একটি পোস্টার সাঁটানো। গত জুলাইয়ে নিজ বাড়িতে ময়েসকে হত্যা করা হয়। (ফাইল ছবি) ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১।

যুক্তরাষ্ট্র সরকার মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে, তারা হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল ময়েসের হত্যার প্রধান সন্দেহভাজনদের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে হত্যা বা অপহরণ করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে মায়ামির একটি ফেডারেল আদালতে তাকে হাজির করা হয়, কিন্তু সে আত্মপক্ষ সমর্থনে কৈফিয়ত দেয়নি। সীমিত আয়ের ভিত্তিতে তার জন্য পরামর্শক নিয়োগ দেওয়া হয়, ৩১ জানুয়ারি আবারও তার আদালতে হাজিরা দেবার কথা রয়েছে।

আদালত-নিযুক্ত অ্যাটর্নি আলফ্রেডো ইজাগুইর ইউএস ম্যাজিস্ট্রেট বিচারক অ্যালিসিয়া ওটাজো-রেয়েসকে বলেছেন, তিনি প্যালাসিওসকে আটকে রাখার সুপারিশ করেছেন, কারণ যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হিসেবে তার কোন অবস্থান নেই, আত্মীয় বা যুক্তরাষ্ট্রের সাথে কোন সম্পর্কও নেই।

প্যালাসিওসকে গত অক্টোবরে জ্যামাইকায় গ্রেপ্তার করা হয় এবং সোমবার তার জন্মস্থান কলম্বিয়ায় যাওয়ার কথা ছিল। কলম্বিয়ার পুলিশের পরিচালক জেনারেল জর্জ লুইস ভার্গাস বলেছেন, পানামায় যাত্রা বিরতির সময় ইন্টারপোল প্যালাসিওসকে জানায়, যুক্তরাষ্ট্র সরকার তাকে হস্তান্তর করছে।

তিনি বলেন, কলম্বিয়া, জামাইকা এবং যুক্তরাষ্ট্র পালাসিওসের নির্বাসন এবং প্রত্যর্পণের সমন্বয়ের জন্য যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, পালাসিওস পানামায় তার যাত্রাবিরতির সময় যুক্তরাষ্ট্রে যেতে সম্মত হয়েছিল।

প্যালাসিওস আদালতের শুনানির সময় সংক্ষেপে বক্তব্য রাখেন , সে তার আয় সম্পর্কে প্রশ্নের উত্তর দেয় এবং বিচারককে বলে, সে কলম্বিয়ার ক্যালিতে একটি বাড়ির মালিক এবং সেনাবাহিনী থেকে প্রায় ৩৭০ ডলার পেনশন পায় ।

ইন্টারপোল হাইতি সরকারের অনুরোধের ভিত্তিতে খুনের চেষ্টা, সশস্ত্র ডাকাতি এবং ষড়যন্ত্রের অভিযোগে প্যালাসিওসকে গ্রেপ্তারের জন্য রেড অ্যালার্ট জারি করে।

হাইতির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় একটি সংক্ষিপ্ত বিবৃতি জারি করে শুধুমাত্র বলেছে, ৭ জুলাই নিজ বাসভবনে মোয়েসের হত্যাকাণ্ডের বিচারে বিজয় দেখতে চায় তারা।

হাইতির প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ক্লড জোসেফ বলেছেন, প্যালাসিওসকে হেফাজতে নেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের একটি সঠিক পদক্ষেপ, তবে তিনি স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে তাকে হস্তান্তরের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সাথে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন, যাতে সে হাইতিতে বিচারের মুখোমুখি হতে পারেন।

কলম্বিয়ার ১৯ জন সাবেক সৈন্যসহ ৪০ জনেরও বেশি সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মধ্যে প্যালাসিওস রয়েছে, যে ২০ বছর ধরে কলম্বিয়ার সামরিক বাহিনীর সদস্য ছিল।

XS
SM
MD
LG