অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন তাদের নাগরিকদের আফগানিস্তানের হোটেল পরিহার করতে বলেছে


ফাইল ছবি, ২০১৬ সালের ২০ই জানুয়ারীতে তোলা হোটেল সেরেনা'র দৃশ্য, ছবি, মোহাম্মদ ইসমাইল/রয়টার্স

কয়েক দিন আগে কাবুলের একটি মসজিদে কয়েক ডজন লোককে আফগানিস্তানে ইসলামিক স্টেট গ্ৰুপের সক্রিয় অঙ্গ সংগঠন, ইসলামিক স্টেট খোরাসান হামলা চালিয়ে হত্যা করার পর, সোমবার যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন তাদের নাগরিকদের আফগানিস্তানের হোটেল ব্যবহার না করার জন্য হুশিয়ার করে দিয়েছে I

তালিবান গোষ্ঠী, যারা অগাস্ট মাসে ক্ষমতা ছিনিয়ে নিয়ে ইসলামিক আমিরাত ঘোষণা করে, তারা এখন আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি চাইছে। এছাড়া তারা মানবিক বিপর্যয় এবং আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক সঙ্কট এড়াতে সহায়তার জন্য আবেদন জানিয়েছেI

তবে বিদ্রোহী সেনা থেকে শাসন পরিচালনায় আসার পথে কট্টরপন্থী ইসলামী গ্ৰুপটি আফগানিস্তানের আইসিস দলের হুমকি মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছেI

যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দপ্তর ওই অঞ্চলে নিরাপত্তা হুমকির উদ্ধৃতি দিয়ে জানায়, "যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক যারা সেরেনা হোটেলে বা হোটেল সংলগ্ন এলাকায় রয়েছেন, তারা যেন অতি সত্বর সেখান থেকে চলে যান"I

ব্রিটেনের ফরেইন, কমনওয়েলথ এন্ড ডেভেলপমেন্ট দপ্তর জানায়, "বর্ধিত ঝুঁকির মাঝে কাবুল এলাকার হোটেলগুলিতে, বিশেষত সেরেনা হোটেলে না থাকার জন্য আপনাদের আবেদন জানানো হচ্ছে"I

তালিবানের ক্ষমতা দখলের পর বহু বিদেশী নাগরিক আফগানিস্তান ত্যাগ করেছেন, তবে বেশ কিছু সাংবাদিক ও সাহায্য কর্মী রাজধানীতে এখনো অবস্থা করছেনI

বিলাস বহুল ও সুপরিচিত হোটেল সেরেনা ব্যবসায়ী মহল ও বিদেশী অতিথিদের কাছে জনপ্রিয়, তালিবান যে হোটেলটিকে দুইবার লক্ষ্যবস্তু করেছেI

২০১৪ সালে প্রেসিডেনশিয়াল নির্বাচনের ঠিক কয়েক সপ্তাহ আগে ৪জন কিশোর বন্দুকধারী তাদের মোজায় পিস্তল লুকিয়ে রেখে বেশ কয়েকটি নিরাপত্তা ব্যূহ ভেদ করে এএফপি'র একজন সাংবাদিক ও তাঁর পরিবারসহ ৯জনকে হত্যা করেছিলI

২০০৮ সালে আত্মঘাতী হামলায় ৬জন নিহত হনI

XS
SM
MD
LG