অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন এখনো সিদ্ধান্তহীন


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন বৃহস্পতিবার এখনো সিদ্ধান্তহীন রয়েছে। ডেমোক্র্যাট প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন ইলেকটোরাল কলেজের সংখ্যাগরিষ্ঠের খুব কাছে রয়েছেন। অনিয়মের অভিযোগ এনে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ভোট গণনা বন্ধ করার দাবি জানান। রিপাবলিকানরা অনিয়মের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন।

বাইডেন ইলেকটোরাল কলেজের গণনায় ২৫৩টি ইলেকটোরাল ভোট পেয়েছেন। চার বছরের মেয়াদে প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য সংখ্যাগরিষ্ঠ ২৭০ প্রয়োজন। তবে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেবে এমন চারটি রাজ্য - জর্জিয়া, পেনসিলভেনিয়া, আরিজোনা এবং নেভাডায় এখনও ভোট গণনা চলছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বাইডেন ডেলাওয়ারের উইলমিংটনে এক সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় বলেন,"প্রতিটি ব্যালট গণনা করতে হবে।"তিনি বলেন "এই জাতির ইচ্ছার প্রতিফলন ঐ ভোটগুলো।এবং ভোটাররাই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করবেন। তিনি আরও বলেন "গণতন্ত্র কখনও কখনও বিশৃঙ্খল হয়, তাই কিছুটা ধৈর্য ধরা প্রয়োজন।" বাইডেন বলেন তিনি ও কামালা হ্যারিস সার্বিক পরিস্থিতি দেখে ভালো অনুভব করছেন এবং কোন সন্দেহ নেই যে ভোট গণনা শেষে তারাই বিজয়ী হবেন।জর্জিয়া এবং পেনসিলভেনিয়ায় ট্রাম্প এগিয়ে আছেন, এবং অন্য দুটি রাজ্যে বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ইলেক্টোরাল কলেজ পদ্ধতিতে, প্রতিটি রাজ্যের জনপ্রিয় ভোট বিজয়ী - মেইন এবং নেব্রাস্কা ব্যতীত, রাজ্যের পুরো নির্বাচনী ভোট পেয়ে থাকেন, যা ঐ রাজ্যের জনসংখ্যার ভিত্তিতে বরাদ্দ হয়ে থাকে।যদি বাইডেন নেভাডা এবং অ্যারিজোনায় ভোটের নেতৃত্ব ধরে রাখতে পারেন, তবে তিনি জর্জিয়া এবং পেনসিলভেনিয়ায় ফলাফল নির্বিশেষে, ২৭০টি ইলেক্টোরাল কলেজের সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোট লাভ করে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হবেন।প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে জয়ী হতে হলে যেসব রাজ্যে তিনি এগিয়ে রয়েছেন সেগুলোতে জয়ী হতে হবে সে সঙ্গে জয় পেতে হবে নেভাডা অথবা অ্যারিজোনাতে যেখানে বর্তমানে বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন।চারটি রাজ্যেই দুই প্রার্থীর ভোটের ব্যবধান কম।

XS
SM
MD
LG