অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলায় ট্রাম্পের সমবেদনা


ক্রাইস্ট চার্চ শহরের দুটি মসজিদে মারণঘাতী হামলার পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প সহানুভূতি প্রকাশ করেছেন এবং নিউজিল্যান্ডের জনগণকে তাঁর প্রশাসনের তরফ থেকে সহযোগিতার কথা বলেছেন। তিনি এই হত্যাকান্ডকে, জঘন্য হত্যার ঘটনা বলে অভিহিত করেছেন।

https://twitter.com/realDonaldTrump/status/1106520743855251456 ))

ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স টুইটারে অনুরূপ অনুভূতি প্রকাশ করে ধর্মবিশ্বাসীদের উপর এই আক্রমণকে কড়া ভাষায় নিন্দে করেছেন।

(( https://twitter.com/VP/status/1106548064716812289 ))

এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউজ এই আক্রমণের কড়া নিন্দে জানিয়ে এটিকে ঘৃণার বিষোদ্গার বলে উল্লেখ করেছে। হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বল্টন এই গুলি চালনার ঘটনাকে , তাঁর কথায় সন্ত্রাসবাদি আক্রমণের মতোই ঘটনা বলে উল্লেখ করে এটিকে ঘৃণা- জনিত আক্রমণ বলেছেন। বল্টন বলেন যুক্তরাষ্ট্র ওয়েলিংংটনে নিজেদের দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে এবং এইঘটনার দিকে নিবিড় নজর রাখছে।

‌যুক্তরাষ্ট্রর পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাইক পম্পেও শুক্রবারের সংবাদ সম্মেলনে এই আক্রমণের নিন্দে জানিয়ে , আমেরিকান জনগণের পক্ষ থেকে সমবেনা ও প্রার্থনার কথা বলেছেন।

নিউ ইয়র্ক সিটির মেয়র বিল দ্য ব্ল্যাসিও বলেছেন ঠিক এই সময় কোন সুনির্দিষ্ট বা বিশ্বাসযোগ্য হুমকি না থাকা সত্বেও, তিনি শহরের মসজিদগুলোতে পুলিশের উপস্থিতি বাড়াচ্ছেন।

XS
SM
MD
LG