অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্ক মধুর নয়- প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান


তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে ভাষণ দিচ্ছেন, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১, ফাইল ছবি, এদুয়ার্দো মিউনোজ/রয়টার্স


"হাবেরতুর্ক" টেলিভিশনের ভাষ্য অনুযায়ী, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেজেপ তাইয়িপ এরদোয়ান বৃহস্পতিবার বলেন তুরস্কের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক মধুর নয় এবং যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার কাছ থেকে আংকারার S -400ক্ষেপনাস্ত্র কেনার বিষয়ে বিরোধের মীমাংসা করতে হবেI

S -400 ক্রয়ের ব্যাপারে ওয়াশিংটন তুরস্কের প্রতিরক্ষা দপ্তরের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করলে এ বছরের শুরুতে নেটোভুক্ত দুটি দেশের সম্পর্ক সর্বনিম্ন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছায়I যুক্তরাষ্ট্র, এছাড়াও আংকারাকে তাদের F -35 জেট বিমান কর্মসূচি থেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে, যে বিমান তারা ক্রয় এবং নির্মাণ করতোI

"হাবেরতুর্ক" প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের মন্তব্য উদ্ধৃতি করে জানায়, তিনি নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের পর সাংবাদিকদের বলেছেন, “তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সু-সম্পর্ক রয়েছে, তা আমি বলতে পারিনা, কারণ ১৪০ কোটি ডলার খরচ করে আমরা F- 35 জঙ্গি বিমান কিনেছি, তবে আমাদেরকে সেগুলি দেয়া হয়নিI যুক্তরাষ্ট্রকে এই বিষয়টি আগে মীমাংসা করতে হবে" I
এরদোয়ান বলেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি সহায়তা না করে, তবে তুরস্ক তাদের প্রতিরক্ষার প্রয়োজন মেটাতে অন্যের সহায়তা নেবেI

তুরস্ক আফগানিস্তান থেকে নেটো বাহিনীর প্রত্যাহারের পর, কাবুল বিমানবন্দরের পরিচালনার ভার গ্রহণ করে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাদের সহযোগিতার সম্পর্ক ঝালাই করে নেয়ার আশা করেছিল। তবে তালিবান দ্রুত দেশটি কুক্ষিগত করার পর, তারা সেই পূর্ব পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনেI

এরদোয়ান সেই থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাহার সম্পর্কিত সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে আসছেন এই বলে যে, ওয়াশিংটনকে সেই সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য “তার মূল্য দিতে হবে”।

প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেন, দুটি দেশকে বন্ধুত্বের বন্ধনে একত্রে কাজ করে যেতে হবে, “তবে বর্তমানের নির্দেশনা সেই শুভ ইঙ্গিত দেয় না”।এরদোয়ান বলেন, "যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও তাঁর মধ্যেকার শুরুটা শুভ ছিল না"I

XS
SM
MD
LG