অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নাইজেরিয়া ভ্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি


ফাইল ছবি, সশস্ত্র অপরাধী চক্র নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিম ও মধ্যাঞ্চলীয় রাজ্যগুলিতে সন্ত্রাসী হামলা ও দস্যূতা সাম্প্রতিক মাসগুলিতে বৃদ্ধি করেছে, ধরণের হামলার বিবরণ দিচ্ছেন কয়েকজন মহিলা, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১, ছবি/পিয়াস উতমী একপেই/এএফপি

নাইজেরিয়ায় অপহরণ ও অন্যান্য অপরাধ বৃদ্ধির কারণে, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর আমেরিকান নাগরিক, দ্বৈত নাগরিক ও অন্যান্যদের পশ্চিম আফ্রিকার দেশটিতে ভ্রমণ করার আগে পুনর্বিবেচনা করার পরামর্শ দিয়েছে।

৪ঠা জানুয়ারি জারি করা ভ্রমণ নির্দেশিকায় হুঁশিয়ার করা হয়েছে যে "সশস্ত্র ডাকাতি, হামলা, গাড়ি ছিনতাই, অপহরণ, জিম্মি করা, দস্যূতা এবং ধর্ষণের মতো সহিংস অপরাধ দেশজুড়ে সংঘটিত হচ্ছে। অপহরণের পর মুক্তিপণ চাওয়া এখন নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। এসব হামলা বিশেষত নাইজেরিয়ায় বেড়াতে আসা দ্বৈত নাগরিক এবং যুক্তরাষ্ট্রের কথিত বিত্তশালী নাগরিকদের উদ্দেশ্যে পরিচালিত হচ্ছে"।

এএফপি বার্তা সংস্থাটি জানায়, ঐ একই দিন নাইজেরিয়ার কেন্দ্রীয় সরকার সরকারিভাবে সশস্ত্র ডাকাত দলকে সন্ত্রাসী বলে অভিহিত করে। এর ফলে অপরাধী ব্যক্তি বা যারা এদের সহায়তা করবে তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা ও জরিমানা করা হবে বলে জানানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের নির্দেশিকায় পরিষ্কারভাবে বর্নো, ইয়োবে, উত্তরাঞ্চলীয় আদামাওয়া রাজ্যগুলোতে সন্ত্রাসবাদ এবং অপহরণের কারণে ভ্রমণ না করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অপহরণের উদ্বেগ থাকায় একই ধরণের হুঁশিয়ারি নিষেধাজ্ঞা বাউচি, গোম্বে, কাদুনা, কানো, কাটসিনা এবং জামফারা ভ্রমণের বেলায় দেয়া হয়।

উপকূলীয় অঞ্চল, আকওয়া আইবোম বায়েলসা, ক্রস রিভার, ডেল্টা এবং রিভার্স রাজ্যগুলোর জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে, তবে পোর্ট হারকোর্ট এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত নেই।

আফ্রিকার সবচাইতে জনবহুল দেশটি এখন মুক্তিপণের জন্য বড় রকমের অপহরণের ঘটনাসহ ক্রমবর্ধমান নিরাপত্তাহীনতার কবলে পড়েছে। শুধুমাত্র কাদুনা জেলায় সরকার ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসে ১,৭২৩ টি অপহরণের কথা জানান, যা পূর্ববর্তী পুরো বছরে ছিল প্রায় ২০০০।

XS
SM
MD
LG