অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র অভিবাসন-প্রত্যাশীদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবার সময় তাদের মেক্সিকোতে থাকতে বাধ্য করার কর্মসূচী পুনর্বহাল করবে


ফাইল ছবিতে দেখা যাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডার প্রোটেকশনের একজন কর্মকর্তা মেক্সিকোর টিজুয়ানাতে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় প্রার্থীদের কাগজপত্র পরীক্ষা করছেন। জুলাই ০৫, ২০২১।

যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অফ হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বৃহস্পতিবার জানিয়েছে যে, তারা আদালতের আদেশ মেনে চলবে এবং একটি কর্মসূচী পুনর্বহাল করবে। ঐ কর্মসূচীতে যুক্তরাষ্ট্রে আসার চেষ্টা করছেন এমন অভিবাসন-প্রত্যাশীদের আবেদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার সময়, তাদের মেক্সিকোতে থাকতে বাধ্য করা যায়।

সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সময় ঐ প্রোটোকলটি চালু করা হয়েছিল। তবে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সময় হোমল্যান্ড সিকিউরিটির কর্মকর্তা, তা কার্যকর নয় বলে বাদ দেন।

হোমল্যান্ড সিকিউরিটি জানিয়েছে যে, কেন্দ্রীয় আদালতের সিদ্ধান্তে হওয়া একটি পরিবর্তনের ফলে কর্মসূচীটি পুনরায় বাস্তবায়নে তাঁরা সত্-বিশ্বাসে কাজ করছে। কারণ এ বছর হাজার হাজার অভিবাসন-প্রত্যাশীরা মেক্সিকো থেকে যুক্তরাষ্ট্রে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্ত দিয়ে প্রবেশের চেষ্টা করছে, যাদের বেশিরভাগই মধ্য আমেরিকার থেকে এসেছেন।

হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বলছে, তারা মেক্সিকোর উত্থাপিত 'মানবিক বিষয়ে উদ্বেগ' লক্ষ্য করেছেন এবং তার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রও সহমত। মেক্সিকো অভিবাসন-প্রত্যাশীদের প্রত্যাবর্তনে সম্মত হবার সঙ্গে সঙ্গে, হোম ল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ ‘মেক্সিকোতেই থাকুন’ এই কর্মসূচীটি পুনরায় চালু করবে।

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে, নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী কোন ব্যক্তি মেক্সিকোতে ফিরে যাবার ছয় মাসের মধ্যে আশ্রয়ের দাবির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, অভিবাসন-প্রত্যাশীদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে কিনা সে বিষয়ে শুনানির আগে এবং শুনানি চলাকালীন, তারা তাদের আইনজীবীদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন। কিছু অভিবাসন-প্রত্যাশীরা দাবি করেছেন যে, তারা নিজ দেশে নিপীড়নের মুখোমুখি হয়েছেন।

XS
SM
MD
LG