অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট টেক্সাসের গর্ভপাত নিষিদ্ধের আইন বহাল রেখেছে


টেক্সাসের ফোর্ট ওয়ার্থে মহিলাদের একটি ক্লিনিকের দরজা খুলছেন একজন নিরাপত্তা কর্মী। সেপ্টেম্বর ০১, ২০২১।

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট টেক্সাসের একটি আইন, যা ঐ রাজ্যের বেশিরভাগ গর্ভপাত নিষিদ্ধ করে, তা বহাল রেখেছে। গর্ভপাত অধিকার গোষ্টীগুলো ঐ আইনটি কার্যকর না করার জন্য জরুরী ভিত্তিতে যে অনুরোধ করেছিল, সুপ্রিম কোর্ট তা ৫-৪ ভোটে প্রত্যাখান করে।

বুধবার গভীর রাতে সুপ্রিম কোর্টের সংখ্যাগরিষ্ট বিচারকদের স্বাক্ষরবিহীন এক আদেশে বলা হয়েছে, ঐ আইনটির চ্যালেঞ্জকারীরা তা স্থগিত করার জন্য যথেষ্ঠ প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরতে পারেনি। তবে ঐ আইনটির অন্যান্য চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হাবার সম্ভাবনা রয়ে গেছে।

আদেশে বলা হয়, "এই সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে আমরা জোর দিয়ে বলি যে, আবেদনকারীদের মামলায় নিশ্চিতভাবে কোন বিচার বিভাগীয় বা শক্ত দাবির সমাধান করা আমাদের উদ্দেশ্য নয়। বিশেষ করে, এই আদেশ টেক্সাসের আইনের সাংবিধানিকতা সম্পর্কে কোন উপসংহারের উপর ভিত্তি করে নয় এবং টেক্সাসের রাজ্য আদালতসহ টেক্সাস আইনের কাছে অন্যান্য পদ্ধতিগতভাবে সঠিক চ্যালেঞ্জগুলোকেও কোনভাবে সীমাবদ্ধ করে না"।

সুপ্রিম কোর্টের অপর তিন উদারপন্থী বিচারপতির সঙ্গে প্রধান বিচারপতি জন রবার্টসও এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেন।

বিচারপতি সোনিয়া সোটোমায়োর ভিন্নমত প্রকাশ করে লিখেছেন, ঐ আইনটি টেক্সাসের অন্তত ৮৫ শতাংশ গর্ভপাত রোগীর চিকিৎসা অবিলম্বে নিষিদ্ধ করেছে এবং এটা বিদ্যমান আইনের আওতায় সম্পূর্নভাবে অসাংবিধানিক।

অন্য অনেক ডেমোক্র্যাটদের মত গর্ভপাত অধিকার সমর্থক যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বুধবার সকালের দিকে এক বিবৃতিতে বলেন, দক্ষিণ-পশিমাঞ্চলীয় রাজ্যের আইনটি ১৯৭৩ সালের ঐতিহাসিক Roe v. Wade সিদ্ধান্তের অধীনে প্রতিষ্ঠিত সাংবিধানিক অধিকারকে লঙ্ঘন করে। তিনি বলেন, মহিলাদের গর্ভধারণের প্রথম ছয় মাসে গর্ভপাত করার সাংবিধানিক অধিকার আছে, যখন ভ্রুণ গর্ভের বাইরে বেঁচে থাকতে পারে না।

XS
SM
MD
LG