অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরে আসায় দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো ঝুঁকিতে পড়বে


বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ১৯৯০ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত অর্থাৎ ২৫ বছরে বিশ্বের অন্যতম বেশি বায়ুদূষণ হয়েছে ভারত এবং বাংলাদেশে। আর এই তালিকায় চীনসহ আরও কয়েকটি দেশ রয়েছে।

বাতাসে থাকা ক্ষতিকর কনা যাকে PM 2.5 বলা হয়, তা মানব দেহে নানা রোগ বালাইয়ের সৃষ্টি করছে। আর বিশ্বজুড়ে এতে মানুষ মারা যাচ্ছে প্রতি বছরই। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা সংস্থা হেলথ ইফেক্টস ইনস্টিটিউট এবং ইনস্টিটিউট ফর হেলথ মেট্রিকস অ্যান্ড ইভালুয়েশন-র ২০১৭ সালের এক যৌথ গবেষণায় বলা হয়েছে, বাতাসে ক্ষতিকর কণার কারণে বিশ্বে প্রতি বছর ৪২ লাখ মানুষ মৃত্যুবরণ করছে। যার মধ্যে চীনে ১১ লাখ ৬ হাজার, ভারতে ১০ লাখ ৯০ হাজার এবং বাংলাদেশে ১ লাখ ২২ হাজার জন ২০১৫ সালে মারা গেছেন।

শিল্পোন্নত দেশগুলো পরিবেশ রক্ষায় কোনো বিধি-বিধান না মানায় বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশে। একদিকে সাগর জলের উচ্চতা বৃদ্ধি, আবার অন্যদিকে অসময়ের খরা, বৃষ্টি, ঝড়, জলোচ্ছাসের বৃদ্ধি ঘটছে মাত্রাতিরিক্তভাবে। এর আর্থিকসহ বিভিন্ন ক্ষতির পরিমাণও বিশাল।

এমন এক ঝুঁকিপূর্ণ পৃথিবীতে ২০১৫ সালে বিশ্বের ১৯৫টি দেশ কর্তৃক সম্পাদিত প্যারিস জলবায়ু বিষয়ক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বিদায় নেয়ার প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ঘোষণা বাস্তবায়নে বিশাল ঝুঁকিতে পড়বে দক্ষিণ এশিয়া, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়াসহ বিশ্বের বহু দেশ।

জাতিসংঘ বলছে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ২০৩০ সাল নাগাদ বিশ্বের ১০ কোটি মানুষকে দারিদ্র্যের প্রান্তিক সীমানায় ঠেলে নিয়ে যাবে। কিন্তু কেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প এমন সিদ্ধান্ত নিলেন-এ প্রশ্নে বিশ্লেষণ করেছেন বিশিষ্ট পরিবেশ বিজ্ঞানী এবং ঢাকার ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর আইনুন নিশাত।

বিশেষজ্ঞগণ বলছেন, প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিদায় নিলে চীন বেশি লাভবান হবে। প্রভাবশালী ফরেন পলিসি ম্যাগাজিন এক নিবন্ধে বলছে, প্যারিস চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেলে জলবায়ু সংক্রান্ত ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র শুধু তার আন্তর্জাতিক নেতৃত্বই হারাবে না, ভবিষ্যৎ জ্বালানি খাতের নেতৃত্বও চলে যাবে চীনের হাতে। এ সম্পর্কে বিশ্লেষণ করেছেন প্রফেসর আইনুন নিশাত।

বিশেষজ্ঞগণ বলছেন, প্যারিস চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অভ্যন্তরীণ চাপের মুখে ফেলবে। কাজেই চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য আগামী দিনগুলোর জন্য অপেক্ষা করতেই হবে। ঢাকা থেকে আমীর খসরু।


XS
SM
MD
LG