অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোগ প্রতিরোধে টীকা হচ্ছে সবচেয়ে শক্তিশালী জনস্বাস্থ্য সরঞ্জাম: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা


আজ থেকে ৩৫ বছর আগে ১ কোটি ৩০ লাখ শিশু প্রান হারিয়েছে এমন রোগে যা টীকার মাধ্যমে প্রতিরোধ করা যেত। এই বাস্তবতায় এ বছর আর্ন্তজাতিক প্রচারনার লক্ষ্য-সব বয়সী মানুষের জন্য জীবন রক্ষাকারী টীকার সহজ প্রাপ্যতা নিশ্চিত করা। ভয়েস অফ আমেরিকার Carol Pearson এর প্রতিবেদন এবং বাংলাদেশে টীকাদান কর্মসূচীর বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে প্রাইমারী হেলথ কেয়ার এর পরিচালক ডা. খালেদা ইসলামের সঙ্গে কথা বলে জানাচ্ছেন রোকেয়া হায়দার ও তাওহীদুল ইসলাম।

please wait

No media source currently available

0:00 0:10:28 0:00

২0২0 সালের মধ্যে টীকা প্রতিরোধক রোগ থেকে লাখ লাখ মানুষকে বাঁচানো হচ্ছে লক্ষ্য। আর পরিকল্পনাটি হল শিশু থেকে বৃদ্ধ সব বয়সী মানুষকে রক্ষা করার জন্য সবার জন্য টীকার সহজ প্রাপ্যতা নিশ্চিত করা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চায়, বিশ্বের সবাই জানুক যে টীকা রোগ প্রতিরোধে কাজ করে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার DR. FLAVIA BUSTREO বলেন- “রোগ প্রতিরোধ এবং টীকা প্রদান হচ্ছে আমাদের কাছে থাকা সবচেয়ে শক্তিশালী জনস্বাস্থ্য সরঞ্জাম।“

Dr. Flavia Bustreo বলেন, টিকা প্রতিরোধ করতে পারে এমন রোগে ৩৫ বছর আগে ১ কোটি ৩০ লাখ শিশু প্রান হারিয়েছে। ঐ সংখ্যা এখন ৬০ লাখে নেমে এসেছে। কিন্তু এখনো তা অনেক বেশী।

বর্তমানে ৮৫ শতাংশ শিশু হাম এবং অন্যান্য মারাত্মক রোগের টিকা নিচ্ছে। তবে এই সংখ্যাটি আরও বেশি হতে হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার DR. FLAVIA BUSTREO বলেন- “আমরা "herd effect" বা একত্রে পরিচালিত পদক্ষেপ বলে যাকে চিহ্নিত করি, তার জন্য ৯০ শতাংশের মত টীকা প্রদানের প্রয়োজন হয়। এর অর্থ হচ্ছে যেসব শিশুকে টীকা প্রদান করা হয়েছিল তারা এর আওতায়, আবার সংক্রমণ হ্রাসের কারণে যেসব শিশুকে টীকা প্রদান করা হয়নি, তারাও এর আওতায়।“

ছয় বছর আগে ১৯৪টি দেশ, টীকা প্রদানের সংখ্যা বাড়ানো এবং পোলিও চিরতরে দুর করার জন্য Global Vaccine Action Plan স্বাক্ষর করে।

বর্তমানে পোলিওর বিরুদ্ধে টিকা দেওয়ার জন্য একটি বিশেষ তৎপরতা রয়েছে। বেশিরভাগ দেশে এই রোগটি এখন অতীতের ঘটনা।

সংঘর্ষ চলছে এমন দুটি অঞ্চলে কেবল পোলিও বিদ্যমান। আর এই দুটি অঞ্চল হচ্ছে নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চল এবং পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যকার সীমান্তাঞ্চল। গত বছরে মাত্র ৩৭ জন পোলিও আক্রান্ত হয়েছিল। ১৯৮৮ সালে যখন পোলিও নির্মূল অভিযান শুরু হয়েছিল, তখন তিন লাখ ৫০ হাজার জন পোলিও আক্রান্ত হয়েছিল। UNITED NATIONS SPECIAL ENVOY এর DR. DAVID NABARRO বলেন- "কোন রোগ নির্মূল করার শেষ অংশটি সবচেয়ে কঠিন। যদি আপনি এটি না করেন, তাহলে আপনি সবকিছু হারাবেন। এটি করার জন্য, আপনার যেসব শক্তি এবং প্রতিশ্রুতি রয়েছে, তা নিয়োগ করতে হবে এবং এর জন্য বিশেষ ধরনের একাগ্রতা প্রয়োজন।"

জাতিসংঘের পরিকল্পনাটি টীকার মাধ্যমে প্রতিরোধযোগ্য রোগ নিয়ন্ত্রণ এবং ২0২0 সালের মধ্যে অন্যান্য রোগের জন্য নতুন টীকা তৈরীর আহ্বান জানায়।

XS
SM
MD
LG