অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভয়েস অফ আমেরিকার সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাতকারের ওপর ভিত্তি করে প্রতিবেদন


সরকার কবিরুদ্দিন ওয়াশিংটন থেকে শুভেচ্ছা জনাচ্ছি। আপনি ঘন্টাখানেক আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাতকার নিয়েছেন।

তো এখন আমরা সংক্ষেপে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের ওপর আলোচনা করবো। যেমন কিছু বক্তব্য শুনলাম তিনি দেশের উন্নয়নের কথা বলেছেন,

প্রধানমন্ত্রী বললেন, “দেশের মানুষের প্রতি আমাদের একটা কর্তব্যবোধ আছে, আমরা সবসময় দেশকে নিয়েই চিন্তা করি...... বিদেশ থেকে ইনভেস্টমেন্ট আসছে......আমরা যে পারি তাতো আমরা প্রমাণ করে দিচ্ছি”।

তিনি ভবিষ্যত উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়েও তো আলোচনা করেছেন। জাপান বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও সহযোগিতার ক্ষেত্রে শীর্ষ পর্যায়ে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সে সব বিষয় উল্লেখ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ আমরা সুপরিকল্পিতভাবে এগুচ্ছি......আমাদের অর্থনৈতিক নীতিমালা তৈরি করা আছে.........ষষ্ঠ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা আমরা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি......”

সরকার কবীরুদ্দীন জানালেন, প্রধানমন্ত্রী একটি বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন, তা হলো নারীর ক্ষমতায়ন। তিনি কথা বলেছেন, নারী শিক্ষা নিয়ে। নারী নির্যাতন, নারী নিগ্রহ, ইভ টিজিং রোধে তাঁর সরকার কি পদক্ষেপ নিয়েছেন, তার ওপরও প্রধানমন্ত্রী আলোকপাত করেন।

আরেকটি বিষয় তিনি আবারো জোড় দিয়ে বললেন, তিনি ২০২১ সালের মধ্যে একটি মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করার লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের মধ্যকার সুসম্পর্কের কথা উল্লেখ করেন। তিনি আরো বলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতিতে, বাংলাদেশ বিশ্বের সকল দেশের সঙ্গেই সুসম্পর্ক প্রত্যাশা করে।

এবছর জাতিসংঘের বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেবার ৪০ বছর পূর্তি হলো। শনিবার প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ভাষণ দেবেন। এবং এই ভাষণ তিনি দেবেন বাংলায়।

please wait

No media source currently available

0:00 0:06:15 0:00
সরাসরি লিংক

XS
SM
MD
LG